সর্বশেষ
সিলেটে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে ৪ মুসল্লী নিহত         বিয়ানীবাজারে অগ্নিকাণ্ডে আড়াই লাখ টাকার ক্ষতি         রাজনগরে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত         জগন্নাথপুরে সিএইচসিপি’র অবস্থান কর্মসূচি         জগন্নাথপুরে ৩০ বছর ধরে পরিত্যক্ত সেতু!         বাংলাদেশে নারীর উপর অত্যাচার চলবে না : অর্থ প্রতিমন্ত্রী         বিশ্বনাথে খেলার মাঠে ‘গুচ্ছগ্রাম’ নির্মাণের প্রতিবাদে মানববন্ধন         প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে পুরষ্কার গ্রহণকারী বর্ণা আর নেই         জাফলংয়ে রেস্টুরেন্ট কর্মচারীর আত্মহত্যা         ছাতকে সিএইচসিপিদের অবস্থান কর্মসূচী পালন         তাহিরপুর সীমান্তে মামলা ও মৃত্যু ঠেকাতে পারছেনা চোরাচালান ও চাঁদাবাজি বাণিজ্য         মাধবপুরে ৮৬ বোতল ভারতীয় মদ জব্দ        

যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ১২:১০:৫১,অপরাহ্ন ১২ অক্টোবর ২০১৭ | সংবাদটি ৮১ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: পুনর্গঠন করা হয়েছে যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। চেয়ারম্যান ও দু’জন সদস্য নিয়োগের মধ্য দিয়ে বুধবার এই ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করল সরকার। পুনর্গঠন আদেশ অনুযায়ী বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামকে চেয়ারম্যান হিসাবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এর আগে তিনি ট্রাইব্যুনালের সদস্য হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

এছাড়া হাইকোর্টের বিচারক বিচারপতি আমির হোসেন ও অবসরপ্রাপ্ত জেলা জজ মো. আবু আহমেদ জমাদারকে সদস্য হিসাবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আবু আহমেদ জমাদার অবসরের পূর্বে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। ওই আদালতে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত দু’টি দুর্নীতি মামলার বিচার চলছিল।

গত ১৩ জুলাই যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান হাইকোর্টের বিচারপতি আনোয়ার উল হক মারা যান। তার মৃত্যুবরণের আড়াই মাস পর যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করা হলো। বুধবার আইন মন্ত্রণালয় পুনর্গঠন সংক্রান্ত এক প্রজ্ঞাপন জারি করে। ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বিচারপতি আনোয়ারুল হক মৃত্যুবরণ করায় এবং ট্রাইব্যুনালের সদস্য বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দী হাইকোর্টে প্রত্যাবর্তন করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করায় ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইমস (ট্রাইব্যুনালস) অ্যাক্ট, ১৯৭৩ এর ৬(৪) ধারার বিধান মোতাবেক উক্ত পদ শূণ্য ঘোষণা করে বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামকে ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান, বিচারপতি আমির হোসেন ও জজ মো. আবু আহমেদ জমাদারকে (অবসরোত্তর ছুটি বাতিল) করে সদস্য পদে নিয়োগ করা হলো। এই নিয়োগের মধ্য দিয়ে পূর্ণাঙ্গ ট্রাইব্যুনাল হিসাবে বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করবে। পূর্ণাঙ্গ ট্রাইব্যুনাল অর্থাৎ তিনজন বিচারক না হলে মানবতাবিরোধী অপরাধের কোন মামলার রায় ঘোষণা করা যায় না।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালে ৩৩টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এর মধ্যে ৭টি মামলা রয়েছে সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে। অভিযোগ গঠন পর্যায়ে রয়েছে ১০টি মামলা। ১৬টি মামলা রয়েছে শুনানির অপেক্ষায়। এ ছাড়া একটি মামলা রায়ের জন্য অপেক্ষমান রয়েছে। এসব মামলায় আসামির সংখ্যা দেড় শতাধিক। এর মধ্যে ৮৮ আসামি কারাগারে আটক রয়েছেন। মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারের জন্য ২০১০ সালের ২৫ মার্চ গঠন করা হয় যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল। শুরুতে একটি ট্রাইব্যুনালে বিচার কার্যক্রম শুরু হলেও পরে আরেকটি ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়। দু’টি ট্রাইব্যুনাল ২৯টি মামলা নিষ্পত্তি করে।






Related News

  • ডিএনসিসির উপ-নির্বাচন স্থগিত
  • বুড়ো বয়সের পরকীয়ায় তিনজনের ফাঁসির আদেশ
  • এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে অগ্নিকান্ডের মামলায় ১০ আসামীর জামিন বহাল
  • আ.লীগ নেতা হত্যা মামলায় ৯ জনের মৃত্যুদন্ড
  • বাধা নেই ফোরজি লাইসেন্স কার্যক্রমে
  • ফোরজি সংক্রান্ত বিটিআরসির বিজ্ঞপ্তি স্থগিত
  • মৌলভীবাজারের দুই জনের মৃত্যুদণ্ড ও তিনজনকে যাবজ্জীবন
  • আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের জামিন আপিলে বহাল
  • Comments are Closed