সর্বশেষ
বিশ্বনাথে নদী ভাঙ্গনে আরো ১৫টি পরিবার গৃহহারা         দক্ষিণ সুরমায় তীর খেলার সামগ্রীসহ ৩ যুবক আটক         কোম্পানীগঞ্জে শাহ আরপিন টিলায় শ্রমিকের মৃত্যু         দক্ষিণ সুরমায় সিএইচসিপিদের কর্মবিরতী পালন         কমলগঞ্জে কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত সিএইচসিপির কর্মবিরতি         মৌলভীবাজারে দুই বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার         গোলাপগঞ্জে দিপু হত্যা: চাচী গ্রেপ্তার, আদালতে স্বীকারোক্তি         শাবির ছাত্রী হলের গ্রিল কেটে ল্যাপটপ ও মোবাইল চুরি         জাতীয় আচার প্রতিযোগিতায় সুনামগঞ্জের পান্না সেরা         দিরাইয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে, আহত ৩০         শাবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন         শ্রীমঙ্গলে জনগনের মুখোমুখি জনপ্রতিনিধি        

মৃত্যুর পর ব্যবহারকারীদের সোশ্যাল অ্যাকাউন্টের কী হয়!

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ১২:৪১:২১,অপরাহ্ন ১১ অক্টোবর ২০১৭ | সংবাদটি ৯৩ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের জীবনে এক গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তবে মৃত্যুর পর এই অ্যাকাউন্টগুলির কী হয়?

সামাজিক গণমাধ্যম আমাদের জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। এর মাধ্যমে অপরিচিত জনদের সঙ্গেও সামাজিক যোগাযোগ গড়ে তোলা, নতুন নতুন জিনিস আবিষ্কার, নতুন বন্ধু তৈরি এবং নিজের মতামত ও চিন্তা প্রকাশ সহ নানা সুযোগ তৈরি হয়েছে।

কোনও সন্দেহ নেই, ইউটিউব, টুইটার, লিঙ্কডিন, ইনস্টাগ্রাম সহ একাধিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সাইটস থাকলেও, ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা সবথেকে বেশি। কেউ যখন নিজে ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি চালান তখন কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু মৃত্যুর পর ফেসবুকীয় ডিজিটাল সত্ত্বার কী হয়?

আপনি চাইলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আপনার মৃত্যুর পর আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দেবে অথবা চালু রাখবে। আপনি যদি আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি আপনার মৃত্যুর পরও স্মৃতি হিসেবে চালু রাখতে চান তাহলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আপনার প্রোফাইল নামের পাশে ‘Remembering’ অর্থাৎ ‘স্মরণে’ এই শব্দটি দেখাবে। তবে আপনার মৃত্যুর পরে আপনার অ্যাকাউন্টটি কে চালাবে সে ব্যাপারে আপনাকে একটি আইনি চুক্তি বা উইল এর কপি ফেসবুককে পাঠাতে হবে। এতে ওই ব্যক্তির সঙ্গে আপনার সম্পর্ক এবং তার নাম জানাতে হবে। মৃত্যুর পর সংশাপত্র দেখিয়ে ওই ব্যক্তি আপনার অ্যাকাউন্টটি নিজে চালাতে পারে।

তবে আপনার মৃত্যুর খবর ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে যদি কেউ না জানাচ্ছে ততদিন সক্রিয় থাকবে অ্যাকাউন্টটি।

তবে ফেসবুক ছাড়া ভিন্ন ভিন্ন সোশাল মিডিয়ার প্রেক্ষিতে এই প্রশ্নের উত্তরটিও ভিন্ন হতে বাধ্য। কারণ ভিন্ন ভিন্ন সোশাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মের ব্যক্তিগত গোপনীয়তার নীতিও ভিন্ন।

আসুন জেনে নেওয়া যাক ফেসবুক থেকে শুরু করে টুইটার, আপনার মৃত্যুর পর আপনার অ্যাকাউন্টটির কী হবে।

১. ইউটিউব
ইউটিউবও তাদের ব্যবহারকারীদের মৃত্যুর পর নিজেদের অ্যাকাউন্টের ভবিষ্যৎ নির্ধারণের সুযোগ দিয়ে রেখেছে। যারা ইউটিউবে চ্যানেল খুলে মিলিয়ন ডলার আয় করছেন তাদের জন্য এটা খুবই উপকারী হয়েছে। এ ক্ষেত্রে আপনাকে যা করতে হবে তা হলো আপনার মৃত্যুর পর আপনার ইউটিউব চ্যানেলটি কে চালাবে সে-সংক্রান্ত একটি আইনি দলিল পাঠাতে হবে ইউটিউব কর্তৃপক্ষের কাছে।

আপনি যদি তা না চান তাহলে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ নিজেরাই আপনার চ্যানেলটি বন্ধ করে দেবে। কোনও ইউটিউব চ্যানেলে একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত কোনো তৎপরতা না চালানো হলে সেটি এমনিই বন্ধ করে দেয় ইউটিউব কর্তৃপক্ষ।
এই বিষয়ে অন্যান্য খবর

২. ইনস্টাগ্রাম
ইনস্টাগ্রামের নীতিওঅনেকটা ফেসবুকের মতোই। ইনস্টাগ্রামের অ্যাকাউন্টও মৃত্যুর পর চাইলে বন্ধ করে দেওয়া যায় বা স্মৃতি হিসেবে চালু রাখা যায়। তবে এই সিদ্ধান্ত ব্যবহারকারীর হাতে নেই। আপনার মৃত্যুর পর যে ব্যক্তি আপনার ডেথ সার্টিফিকেট ইনস্ট্রাগ্রামকে দেখাতে পারবে সে ব্যক্তিই আপনার অ্যাকাউন্টটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিতে পারবে। তিনিই সিদ্ধান্ত নেবেন আপনার ইনস্ট্রাগ্রাম অ্যাকাউন্টটি চালু থাকবে না বন্ধ করে দেওয়া হবে।

৩. টুইটার
মৃত্যুর পর আপনার টুইটার অ্যাকাউন্টের কী হবে সে ব্যাপারে টুইটারের আলাদা কোনো নীতি নেই। তবে টুইটারের নীতি অনুযায়ী আপনার মৃত্যুর পর আপনার পরিবারের কেউ চাইলে আপনার অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দিতে পারবে। এ ক্ষেত্রে তিনি যে আপনার পরিবারের সদস্য সে প্রমাণ দিতে হবে। প্রমাণ দিতে পারলে তার অনুরোধে টুইটার আপনার পোস্ট, ছবি এবং অ্যাকাউন্ট অপসারণ করবে। আর এ জন্য অবশ্যই আপনার ডেথ সার্টিফিকেট বা মৃত্যুর প্রমাণপত্রও টুইটার কর্তৃপক্ষকে দেখাতে হবে।-এবেলা.ইন

 






Related News

  • পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ ৩১ জানুয়ারি
  • নতুন ভার্সন অবমুক্ত করল হোয়াটস অ্যাপ
  • মঙ্গলের মাটিতে বিশুদ্ধ পানি!
  • দীর্ঘসময় মোবাইল ব্যবহার খুবই ঝুঁকিপূর্ণ
  • স্মার্টকার্ড কবে পাবেন, জেনে নিন ‘এসএমএস’ করে
  • চাঁদের অদেখা অংশ দেখাবে চীন!
  • ২০১৮ সালে আকাশে ঘটবে আটটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা
  • মাত্র ৮ টাকা খরচে বাইক চলবে সারাদিন
  • Comments are Closed