সর্বশেষ
লাউয়াছড়ায় উপবন ট্রেন দু’দফা আটকা, যাত্রী দুর্ভোগ         ফেঞ্চুগঞ্জে আন্তর্জাতিক ক্বেরাত সন্মেলন ৩০ জানুয়ারী         জগন্নাথপুরে দেশীয় পাইপগানসহ ২ যুবক গ্রেফতার         সিলেটে বাস দূর্ঘটনায় ইজতেমা ফেরত আরেক মুসল্লির মৃত্যু         জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত আরো ১জনের মৃত্যু         শাহ আরফিন টিলায় পাথর শ্রমিক নিহত         জকিগঞ্জে নলকুপের পাইপে গ্যাস উদগীরন, জনমনে আতংক         একটি চক্রের হাতে জিম্মি ছাতকের ৩ গ্রামের মানুষ         শাবি’র ছাত্রী হলে চুরির ঘটনায় ৩ যুবক আটক         কমলগঞ্জে সিএইচসিপির কর্মবিরতি পালন         শাবি’তে পঞ্চম গবেষণা সম্মেলন শুরু         সিলেটে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে ৪ মুসল্লী নিহত        

তানোরে আমণ চাষে পার্চিং পদ্ধতি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ৫:৪১:০৭,অপরাহ্ন ০৬ অক্টোবর ২০১৭ | সংবাদটি ৯৮ বার পঠিত

আলিফ হোসেন, তানোর থেকে: রাজশাহীর তানোরে আমণখেতের পোকা দমনে কৃষি বিভাগের পরামর্শে কৃষকরা জমিতে কিছু দুর পর পর ধঞ্চে, কলাগাছ ও গাছের ডাল পুঁতে দিচ্ছেন। ধানখেতে পুঁতে রাখা এসব গাছ ও ডালগুলোতে বিভিন্ন রকমের পাখি বসছে এবং ধানখেতের পোকা ধরে খাচ্ছে। ফলে কীটনাশক ও বিভিন্ন ধরণের ওষুধ ছাড়াই পোকার আক্রমণ থেকে ধানগাছ রক্ষা পাচ্ছে। ফসলের জমিতে পাখি বসার উপযোগী গাছ ও ডাল পুঁতে পোকা দমন করার এ পদ্ধতির নাম পার্চিং পদ্ধতি বলে কৃষিবিদরা জানিয়েছেন। অল্প সময়ের মধ্যে এই পদ্ধতি স্থানীয় কৃষকদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। ফলে ফসলের পোকা দমনে পার্চিং পদ্ধতি দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, তানোরে চলতি মৌসুমে প্রায় সাড়ে ২১ হাজার হেক্টর জমিতে আমণ চাষাবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। এলাকার অধিকাংশ আমণখেতে পোকার আক্রমণ দেখা দিয়েছে। উপজেলার তাঁতিহাটি গ্রামের কৃষক আব্দুর রাজ্জাক (৪৫) বলেন, আমারে এলাকার সব জমিতে পুকা লাগিছে। এমনিতে এ বছর ধানের বিছন (চারা) কিনতে যায়া মেলা ট্যাকা খরচ করিছি। এখন ধানের জমিত পুকা লাগিছে কিন্ত বিষ ও ওষুদ কিনার লগদ ট্যাকা নাই। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিবুল ইসলাম স্যারের কাছে গেলে তিনি আমাকে জমিত বিভিন্ন গাছের ডাল পুঁত্যা র‌্যাকতে বুলিছে। স্যারের কথা শুন্যা জমিত ডাল পুঁত্যা রাখিছি। আমি মেল্যা উপকারও পালসি। আমার জমিত এখন পুকার আক্রমণ ম্যালা কম্যা গেলছে।
তানোরের গোল­াপাড়া গ্রামের স্বর্ণ পদকপ্রাপ্ত আদর্শ কৃষক নুরমোহাম্মদ (৪৫) বলেন, এ পদ্ধতিতে পোকা দমন আমাদের এলাকায় প্রায় নতুন। তিনি বলেন, এ পদ্ধতিতে পোকা দমন করায় ফসলে ক্ষতিকর কীটনাশক ব্যবহার করার প্রয়োজন হয় না। ফলে শ্রম ও আর্থিকভাবে কৃষকরা উপকৃত হচ্ছে। যে কারণে পার্সিং পদ্ধতিতে ফসলের পোকা দমন দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। তিনি এ পার্চিং পদ্ধতিতে পোকা দমনের বিষয়ে ব্যাপক-প্রচার ও প্রচারণার দাবি জানান।
তানোর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, তানোরে কৃষকদের কাছে পোকা দমনের পার্চিং পদ্ধতি অনেকটা নতুন। এলাকার অধিকাংশ আমণক্ষেতে ইতিমধ্যে পার্চিং পদ্ধতিতে পোকা দমন করা হচ্ছে। এটা পরিবেশবান্ধব এবং এই পদ্ধতি ব্যবহারে জমিতে ক্ষতিকারক কীটনাশক ব্যবহার কমবে। এছাড়াও কৃষকরা অতিরিক্ত অর্থখরচ ও শ্রম দুটি বিষয়ে উপকৃত হবে। তিনি বলেন, এ বিষয়ে কৃষকদের মধ্যে গণসচেতনতা সৃষ্টির জন্য কৃষি বিভাগ থেকে ব্যাপকভাবে প্রচারণা করা হচ্ছে।






Related News

  • নীলফামারীতে রেকর্ড পরিমান সরিষার আবাদ
  • বিশ্বনাথে বোরো ধানের চারা রোপনে ব্যস্ত কৃষকরা
  • টার্কি খামারে আলম মিয়ার ভাগ্য বদল
  • জয়পুরহাটে বিষমুক্ত সবজি চাষে সফলতা
  • বোরো ধান বীজের মূল্য বৃদ্ধিতে কৃষকরা দিশেহারা
  • বিকাশ চন্দ্র হাঁস পালনে বেকারত্ব ঘুচাল
  • কমলগঞ্জে ধান, আলুসহ শাক-সবজির ব্যাপক ক্ষতি
  • গলাচিপায় বিএডিসি থেকে ক্রয় করা আলু বীজ নিয়ে কৃষকরা বিপাকে
  • Comments are Closed