সর্বশেষ

সিলেটে চরম ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশের হার

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ৫:৫১:০৫,অপরাহ্ন ০৪ অক্টোবর ২০১৭ | সংবাদটি ৩৬ বার পঠিত

স্পোর্টস ডেস্ক: ব্যাটিং ব্যর্থতা থেকে বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দল বের হতে পারেনি। আগের ম্যাচে মাত্র ৭৭ রানে আলআউট হবার পর বুধবার চতুর্থ ম্যাচে আগফানদের দেওয়া ১৩৪ রানের টার্গেট টপকাতে পারেনি বাংলাদেশ।মাত্র ৮৮ রানে অলআউট হয়েছে স্বাগতিকেরা। ব্যাটিংয়ে এদিন বাংলাদেশ দল চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। একটা সময় বাংলাদেশ ৮ রানে তাদের শীর্ষ ৬ ব্যাটম্যানকে হারিয়ে ফেলে। উইকেট যে বোলিং সহায়ক ছিল এমন নয়। ব্যাটসম্যানেরা তাদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারলে এই রান সহজে টপকানো যেত।পাঁচ ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ ২-১ পিছিয়ে রয়েছে।

আফগানদের দেওয়া ১৩৪ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকে ধারাবাহিক ভাবে উইকেট হারাতে থাকে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানেরা।আফগান স্পিনার মুজিবের স্পিনে দিশেহারা হয়ে যায় বাংলাদেশের টপ অর্ডার। প্রথম ছয় ব্যাটম্যানের রান ছিলো এই রকম ৬,১,০,০,০,০ এই রকম।যার পাঁচটি নেন মুজিব। যার ফলে বাংলাদেশ মাত্র ৮ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে বসে । সপ্তম উইকেট জুটিতে বাংলাদেশকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনতে সহায়তা করেন মাহিদুল ইসলাম ও নাইম হাসান।এই দুজন মিলে ৭৫ রান যোগ করেন।তবে দলীয় ৮৬ রানে নাইম হাসান ব্যক্তিগত ৩০ রানে মুজিবের এলবিডব্লিউয়ের শিকার হয়ে ফিরলে ম্যাচ থেকে এক প্রকার বাংলাদেশ বের হয়ে যায়।তবে শেষ ভরসা ছিলেন মাহিদুল ইসলাম। তবে তিনিও ৪৩ রানে সায়েসের শিকারে পরিনত হলে বাংলাদেশ ৮৮ রানে অলআউট হযে যায়।
আফগানদের হয়ে মুজিব ১৯ রানে ৭ উইকেট,কায়েস ২২ রানে ২ উইকেট এবং নাভিন ৫ রানে ১ উইকেট লাভ করেন।

এর আগে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে আফগানিস্তানকে ব্যাট করতে আমন্ত্রন করেন বাংলাদেশের অধিনায়ক সাইফ হাসান। আগের ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাট করার মত ভুল করেননি বাংলাদেশের দলপতি। আগে ব্যাট না করা যে সঠিক সিদ্ধান্ত ছিলো তার প্রমাণ আফগানদেরকে ১৩৩ রানে অলআউট করা।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে আফগানিস্তান শুরু থেকে ধারাবাহিক ভাবে উইকেট হারাতে থাকে। দলীয় ১৪ রানের মাত্রায় ২৪ বলে ৯ রান করে ফিরেন ওপেনার ইব্রাহিম জাদরান। উইকেট রক্ষক হাসান মাহমুদের বলে মাহিদুলের হাতে ক্যাচ দেন তিনি। ওপর ওপেনার রহমান গুল ৩ রানের বেশী করতে পারেন নি। তাকেও ফেরান পেসার হাসান মাহমুদ। তার পরে বাংলাদেশের স্পিনারেরা আফগানদের মিডল অর্ডার একাই গুড়িয়ে দেন। নাইম হাসান ও সাইফ হাসানের স্পিন ঘুনিতে দাড়াতে পারেনি আফগান ব্যাটসম্যানেরা। আফগান তারিক ৮,পারভেজ ১০ এবং রাসূল ২৩ রানে করে ফিরে গেলে এক সময় আফগানিস্তানের সংগ্রহ ৭৫ রানে ৭ উইকেটে পরিণত হয়। তখন আফগানিস্তান ১০০ করতে পারবে কি না অনেকের মনে শঙ্কা জাগে। তবে আফগান মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান নিসার ওয়াদাতের ৯৩ বলে ৫৩ রানের ইনিংস এবং শেষ দিকে অধিনায়ক নাভিন ৬৬ বলে ১৬ রান করলে শেষ পর্যন্ত ১৩৩ রান করতে সক্ষম হয় আফগানিস্তান।
বাংলাদেশের হয়ে নাইম হাসান ৩৮ রানে ৫টি, হাসার মাহমুদ ২৫ রানে ২টি এবং সাইফ হাসান ৭ রানে ৩ উইকেট লাভ করেন।






Related News

  • বলের আঘাতে আম্পায়ার নিহত
  • সিলেটে বাংলাদেশের সিরিজ হার
  • গোয়াইনঘাটে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুস্টিত
  • সিলেটে চরম ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশের হার
  • লিডিং ইউনিভাসির্টির ইনডোর ক্রিকেটের ফাইনাল অনুষ্ঠিত
  • বিপিএল শুরু হচ্ছে ৩ নভেম্বর
  • সিলেটে জেলাভিত্তিক কারাতে প্রতিযোগিতা ২১-২২ সেপ্টেম্বর
  • বিশ্বকাপ ফুটবলের টিকিট বিক্রি শুরু বৃহস্পতিবার
  • Comments are Closed