সর্বশেষ
লাউয়াছড়ায় উপবন ট্রেন দু’দফা আটকা, যাত্রী দুর্ভোগ         ফেঞ্চুগঞ্জে আন্তর্জাতিক ক্বেরাত সন্মেলন ৩০ জানুয়ারী         জগন্নাথপুরে দেশীয় পাইপগানসহ ২ যুবক গ্রেফতার         সিলেটে বাস দূর্ঘটনায় ইজতেমা ফেরত আরেক মুসল্লির মৃত্যু         জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত আরো ১জনের মৃত্যু         শাহ আরফিন টিলায় পাথর শ্রমিক নিহত         জকিগঞ্জে নলকুপের পাইপে গ্যাস উদগীরন, জনমনে আতংক         একটি চক্রের হাতে জিম্মি ছাতকের ৩ গ্রামের মানুষ         শাবি’র ছাত্রী হলে চুরির ঘটনায় ৩ যুবক আটক         কমলগঞ্জে সিএইচসিপির কর্মবিরতি পালন         শাবি’তে পঞ্চম গবেষণা সম্মেলন শুরু         সিলেটে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে ৪ মুসল্লী নিহত        

গীতিকার পীর শাহ ইসকন্দর মিয়ার ইন্তেকাল

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ১২:১৬:৪৬,অপরাহ্ন ১৪ আগস্ট ২০১৭ | সংবাদটি ১৭৯ বার পঠিত

মোহাম্মদ নওয়াব আলী : গীতিকার পীর শাহ মোহাম্মদ ইসকন্দর মিয়া আজ সোমবার ভোর ৬টায় সিলেটের নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি—–রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।
আজ বিকাল ৫টায় জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের তেরাউতিয়া মোকাম বাড়িতে তার জানাজার নামাজ শেষে পারিবারিক গোরস্তানে দাফন সম্পন্ন করা হবে।
বাউল কবি পীর শাহ মোহাম্মদ ইসকন্দর মিয়া গান লিখতেন প্রাণের টানে। শৈশব থেকেই গান লিখে আসছেন। প্রায় দুই সহস্রাধিক গানের জনক তিনি। তাঁর গান নিয়ে ইতিপূর্বে তেরো খণ্ডে ইসকন্দরগীতি প্রকাশিত হয়েছে। চতুর্দশ খণ্ডটি অপ্রকাশিত ছিল।
পীর শাহ মোহাম্মদ ইসকন্দর মিয়ার কঠোর সাধনা ও নিরন্তর ভাবের রাজ্যে ডুবে থাকার ফসল এই গানগুলো আমাদের জন্য অমূল্য সম্পদ। আমাদের লোকসঙ্গীতের ভাণ্ডার তাঁর গানে আরও সমৃদ্ধ হবে। কিন্তু তিনি তাঁর কর্মের কোনও স্বীকৃতি পাননি। বাংলাদেশ বেতার কিংবা বাংলাদেশ টেলিভিশনের গীতিকার হিশেবে অনুমোদন লাভ করতে পারেননি জীবনের শেষ মুহূর্তেও।
পীর মোহাম্মদ শাহ ইসকন্দর মিয়া সুনামগঞ্জ জেলার ঐতিহ্যবাহী জনপদ জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের অন্তর্গত তেরাউতিয়া মোকামবাড়িতে ১৯৩৫ খ্রিস্টাব্দের ১৫ জুন জন্মগ্রহণ করেন। পিতা শাহ মোহাম্মদ আবদুল হামিদ পীর ও মাতা সৈয়দা মিরজান বিবি। তিনি ৪ ছেলে ও ১ কন্যা সন্তানের জনক।
পীর মোহাম্মদ শাহ ইসকন্দর মিয়া নিজের গানের মাধ্যমেই বেঁচে থাকবেন চিরকাল চিরদিন। তার ভাষায়- প্রাণের কথা গানে লিখে দরবারে আরজ জানাই মৌলা ছাড়া ইসকন্দরের ফরিয়াদের জায়গা নাই।






Comments are Closed