সর্বশেষ

‘ঈদ’, ‘ইদ’, দু’ভাবেই লিখা যাবে

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ৯:০০:৩৬,অপরাহ্ন ২২ জুন ২০১৭ | সংবাদটি ৪৩৯ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: ঈদের আগে ‘ঈদ’ বানান নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। বিতর্কের সূত্রপাত বাংলা একাডেমির আধুনিক বাংলা অভিধান। এ অভিধানে দীর্ঘদিন ধরে প্রচলিত ‘ঈদ’ শব্দকে ‘ইদ’ হিসেবে লেখা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এ নিয়ে তোলপাড়। পক্ষে-বিপক্ষে অনেকেই। এ অবস্থায় বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. শামসুজ্জামান খান জানিয়েছেন, দুটি বানানই লিখা যায়। ‘ঈদ’ বানানটিকে তিনি ঐতিহ্য এবং ‘ইদ’ বানানকে সংস্কার বলেও উল্লেখ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ জুন) ফেসবুকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে লিখেন, “বাংলা একাডেমির আধুনিক বাংলা অভিধানে প্রথম বানান হিসাবে ‘ঈদ’ এবং বিকল্প বানান ‘ইদ’ দেয়া আছে। প্রথম বানানটি প্রচলিত; ২য় বানানটি সংস্কারকৃত। কোন মানুষ দীর্ঘকাল কোন বানান ব্যবহার করলে তা ঐতিহ্যে পরিণত হয়ে যায়। ‘ঈদ’ বানানটি তেমনি। অতএব, দুটি বানানই ব্যবহার করা যায়।”

উল্লেখ্য, বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানে ‘ইদ’ শব্দটির ভুক্তিতে বলা হয়েছে, ‘ইদ/ইদ্/[আ.]বি. ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের প্রধান উৎসব; (ইদুল ফিতর বা ইদুল আজহা); খুশি, উৎসব; ঈদ-এর সংগততর ও অপ্রচিলত বানান। ইদ মোবারক /ইদ্ মোবারক্/বি. ইদের শুভেচ্ছা বিনিময়কালে উচ্চারিত অভিবাদন।’ অন্যদিকে, অভিধানের ‘ঈদ’ ভুক্তিতে বলা হয়েছে, ‘/ইদ/[আ.]বি. ইদ-এর প্রচলিত ও অসংগত বানান।’ আবার বাংলা একাডেমি ব্যবহারিক বাংলা অভিধানে ‘ইদ’ শব্দের ভুক্তিতে নির্দেশ করা হয়েছে ‘ঈদ’ শব্দকে।

 






Related News

  • যেভাবে জন্ম হয়েছিল ইসরায়েলের
  • যে কারণে বাংলাদেশে এত বজ্রপাত
  • সড়ক দূর্ঘটনায় ২৬ এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত
  • পতাকা উত্তোলন দিবস আজ
  • জাতীয় পতাকা উত্তোলন দিবস ২ মার্চ
  • নির্ধারিত সময়ে চালু হয়নি সিলেটের নতুন কারাগার
  • ‘হলি আরবান’ এ্যাপার্টমেন্টের ভূমি নিয়ে বিরোধ, স্থিতাবস্থা জারি
  • সিলেট নগরীতে স্মার্টকার্ড বিতরণ শুরু আজ
  • Comments are Closed