Main Menu
শিরোনাম
‘জাফলংয়ের সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনুন’         ধানের শীষ প্রতীক পেলেন ড. রেজা কিবরিয়া         শ্রীমঙ্গলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস পালিত         গোলাপগঞ্জে দুই ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার         সিলেটে একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতীক সিংহ         সিলেটের ৬টি আসনের প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ         গোয়াইনঘাটে গরুচোরদের হামলায় নিহত ১         হবিগঞ্জে ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার         পীরেরবাজারে ট্রাক চাপায় স্কুলছাত্র নিহত         গোলাপগঞ্জে যুবদল সভাপতি গ্রেফতার         মৌলভীবাজারে ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার         সুনামগঞ্জে ৯ জনের প্রার্থীতা প্রত্যাহার        

বাংলাদেশে মৎস্য ও আইটি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী চীন

প্রকাশিত: ৫:৪৭:০৩,অপরাহ্ন ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ১১ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: চীন বাংলাদেশে মৎস্য উৎপাদন ও আইটি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত মি. ঝেং জুঁও। তিনি বলেন, ‘প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে চীন। বাংলাদেশের বাণিজ্যিক সম্পর্কও তাদের খুব শক্তিশালী। এ বাণিজ্য সম্পর্ক আরো জোরদার করতে পারলে দুই দেশই দারুণভাবে লাভবান হবে।’

বৃহস্পতিবার সকালে সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির হলরুমে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদের সভাপতিত্বে সভায় চীনের রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ প্রযুক্তিতে খুব দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। চীন বাংলাদেশে মৎস্য উৎপাদন ও আইটি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী। দুই দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সহযোগিতা পেলে এই প্রজেক্টটি বাস্তবায়ন করা যাবে।’

সভাপতির বক্তব্যে খন্দকার সিপার আহমদ চীনের রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘চীন বাংলাদেশের উন্নয়নের সহযোগী রাষ্ট্র। বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে চীনের বড় ধরণের বিনিয়োগ রয়েছে। এ বিনিয়োগ বৃদ্ধি করতে পারলে বাংলাদেশ এবং চীন উভয় দেশই লাভবান হবে।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে বর্তমানে বিনিয়োগ বান্ধব পরিবেশ বিরাজ করছে। বর্তমান সরকার বাংলাদেশে বিদেশী বিনিয়োগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে সিলেট সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি সিলেটের শিল্প, পর্যটন ও নির্মাণাধীন সিলেট হাই-টেক পার্কে বিনিয়োগে এগিয়ে আসার জন্য চীনের বিনিয়োগকারীদের আহবান জানান। এছাড়াও তিনি দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য যোগাযোগ বৃদ্ধিতে প্রতিনিধি বিনিময়ের আহবান জানান।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কাস্টম্স, এক্সাইজ এন্ড ভ্যাট কমিশনারেট সিলেট এর কমিশনার মো. গোলাম মুনির, বাংলাদেশ ব্যাংকের জিএম শ্রী জীবন কৃষ্ণ রায়, সিলেট সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রিন্সিপাল প্রফেসর মো. হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জি, সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, সহ সভাপতি মো. এমদাদ হোসেন, পরিচালক জনাব নুরুল ইসলাম, মুশফিক জায়গীরদার, মুকির হোসেন চৌধুরী, নর্থ-ইস্ট ইউনিভার্সিটির সহযোগী অধ্যাপক মো. তানভির আহমেদ চৌধুরী, সাংবাদিক মো. ইকবাল সিদ্দিকী, বারাকা গ্রুপের এমডি ফাহিম এ চৌধুরী, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল সিলেটের সেন্টার ইনচার্জ শ্রী মধুসূদন চন্দ, আলীম ইন্ডাস্ট্রিজ লি. এর ম্যানেজার এম শহিদুল ইসলাম, সানটেক টায়ার লি. কর্মকর্তা মো. রুবেল আহমেদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কাস্টম্স, এক্সাইজ এন্ড ভ্যাট কমিশনারেট সিলেট এর যুগ্ম কমিশনার মিনহাজ উদ্দিন পাহলোয়ান, সিলেট চেম্বারের পরিচালক মো. ওয়াহিদুজ্জামান (ভূট্টো), মো. আব্দুর রহমান (জামিল), মো. আতিক হোসেন, মো. মুজিবুর রহমান মিন্টু, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, সিলেট কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সৈয়দ মোহাম্মদ শরফুদ্দিন, হৃদয়ে একাত্তর বাংলাদেশের চেয়ারম্যান রুহুল আলম চৌধুরী (উজ্জ্বল), চাইনিজ প্রতিনিধিদলের সদস্য মি. ইয়াং চুনজিং, মিস ইয়ু গুয়াংগুয়ে আনান্দি, মি. কং জিয়া জিয়া পে সাংহাই ইলেকট্রিক গ্রুপের প্রজেক্ট ডাইরেক্টর মি. শেং ইয়ংগুই, অপ্পো মোবাইলের ব্রান্ড ম্যানেজার মি. লিউ ডংকুয়ান, মি. মাও জিওয়ংফু, সিলেট চেম্বারের সদস্য খন্দকার ইসরার আহমদ রকি, আলতাফ হোসেন, জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।






Related News

Comments are Closed