Main Menu
শিরোনাম
জৈন্তাপুরে শুকসারী ঘাট নির্মাণে গচ্ছা গেল ২০ লক্ষ টাকা         ‘জাফলংয়ের সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনুন’         ধানের শীষ প্রতীক পেলেন ড. রেজা কিবরিয়া         শ্রীমঙ্গলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস পালিত         গোলাপগঞ্জে দুই ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার         সিলেটে একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতীক সিংহ         সিলেটের ৬টি আসনের প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ         গোয়াইনঘাটে গরুচোরদের হামলায় নিহত ১         হবিগঞ্জে ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার         পীরেরবাজারে ট্রাক চাপায় স্কুলছাত্র নিহত         গোলাপগঞ্জে যুবদল সভাপতি গ্রেফতার         মৌলভীবাজারে ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার        

এমসি কলেজের ছাত্রীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত: ৩:৩০:৪৬,অপরাহ্ন ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ২৪ বার পঠিত

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ শহরের উমেদনগরে টাকা না দেয়ায় স্বামীর সাথে অভিমান করে কুলসুমা আক্তার (২২) নামে এমসি কলেজে পড়ুয়া গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে। সে ওই গ্রামের ব্যবসায়ী তাহির মিয়ার স্ত্রী।

বুধবার বিকেলে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় সে মারা যায়।

জানা যায়, বুধবার দুপুরে স্বামীর কাছে এক হাজার টাকা চায়। কিন্তু স্বামী তা না দেয়ায় সে অভিমান করে বিষপান করে ছটফট করতে থাকে। স্বামীর লোকজন তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিকালে চিকিৎসাধীণ অবস্থায় কুলসুমা মারা যায়।

পুলিশ জানায়, বানিয়াচং উপজেলার হিয়ালা গ্রামের মাধব চন্দ্র রায়ের কন্যা তাহিরের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ধর্ম পরিবর্তন করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে কুলসুমা হয় এবং তাহিরকে গোপনে এফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকেই তাদের দাম্পত্য জীবন সুখ শান্তিতে কাটছিল। এদিকে কুলসুমা সিলেট এমসি কলেজে মাস্টার্সে পড়াশোনা করে আসছে।

খবর পেয়ে সদর থানার এসআই সাইফুল ইসলাম লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। তাহির উমেদনগর গ্রামের আব্দুর রশিদের পুত্র বলে জানা গেছে।






Related News

Comments are Closed