Main Menu

দুই মামলায় ব্যারিস্টার মইনুলের জামিন

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: রংপুর ও জামালপুরে দায়ের করা মানহানির দুই মামলায় সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছে হাই কোর্ট। একই সঙ্গে মামলা দুটির কার্যক্রম স্থগিত করে নথি তলব করেছে বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি জাফর আহমেদের বেঞ্চ।

বুধবার (৫ ডিসেম্বর) মামলা দুটি বাতিল চেয়ে মইনুল হোসেনের করা আবেদনের শুনানি করে হাই কোর্ট এ আদেশ দেয়।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি খন্দকার মাহবুব হোসেন। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মাসুদ রানা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল খুরশীদুল আলম।

৮ নভেম্বর এ দুই মামলা বাতিল ও জামিন চেয়ে হাই কোর্টে আবেদন করেন মইনুল হোসেন। পরে সে আবেদন হাই কোর্টের একটি বেঞ্চের কার্যতালিকা থেকে বাদ দেওয়া হলে তা বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি জাফর আহমেদের বেঞ্চে তোলা হয়।

শুনানিতে বিচারক বলেন, মানহানির অভিযোগে কেবল অপমানিত ব্যক্তি মামলা করতে পারবেন। অন্য কারও এ মামলা করার আইনগত সুযোগ নেই।

উল্লেখ্য, ১৬ অক্টোবর একাত্তর টিভির এক আলোচনা অনুষ্ঠানে আমাদের সময়ের নির্বাহী সম্পাদক মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ বলার পর থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে একের পর এক মামলা হচ্ছে ব্যরিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে, যিনি কামাল হোসেনের উদ্যোগে বিএনপিকে নিয়ে গঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে সক্রিয় ছিলেন। এর মধ্যে রংপুরের এক মামলায় ২৩ অক্টোবর রাতে ঢাকার উত্তরা থেকে মইনুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মইনুলের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন স্থানে দায়ের হওয়া ২২টি মামলার মধ্যে ২০টি মানহানির মামলা। অন্য দুটি মামলা হয়েছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে।






Related News

Comments are Closed