Main Menu
শিরোনাম
‘জাফলংয়ের সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনুন’         ধানের শীষ প্রতীক পেলেন ড. রেজা কিবরিয়া         শ্রীমঙ্গলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস পালিত         গোলাপগঞ্জে দুই ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার         সিলেটে একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতীক সিংহ         সিলেটের ৬টি আসনের প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ         গোয়াইনঘাটে গরুচোরদের হামলায় নিহত ১         হবিগঞ্জে ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার         পীরেরবাজারে ট্রাক চাপায় স্কুলছাত্র নিহত         গোলাপগঞ্জে যুবদল সভাপতি গ্রেফতার         মৌলভীবাজারে ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার         সুনামগঞ্জে ৯ জনের প্রার্থীতা প্রত্যাহার        

সিলেট হবে দেশের উন্নত আইটি নগরী: মেয়র আরিফ

প্রকাশিত: ৮:১৭:০৬,অপরাহ্ন ০৪ ডিসেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ১৩ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম: বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) সিলেট শাখার নবম বার্ষিক সাধারন সভা ও তথ্যপ্রযুক্তি পণ্যের এমআরপি এবং ওয়ারেন্টি নীতিমালা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) রাতে নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, দেশের মানুষ দিন দিন আইটি নির্ভর হয়ে পড়ছে। ইতিমধ্যে সিলেটকে আইটি নগরী হিসাবে গড়ে তুলতে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে আইটি খাতের উন্নয়নের জন্য একটি বহুতল ভবন নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ওই ভবন নির্মাণ হলে সিলেট আইটি খাতের একটি মডেল নগরীতে পরিণত হবে। ব্যবসায়ীরা দেশ বিদেশের নানা প্রযুক্তির সমন্বয় ঘটাতে পারবেন সেখানে। সিলেটকে স্মার্ট নগরী হিসাবে গড়ে তুলতে কাজ অনেক আগেই শুরু হয়েছে বলে জানান মেয়র।

বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সিলেট শাখার চেয়ারম্যান এনামুল কুদ্দুস চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি এএসএমজি কিবরিয়ার পরিচালনায় বিশেষ অথিতির বক্তব্য দেন বিসিএস কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার, সহ সভাপতি ইউসুফ আলী শামীম, মহাসচিব মোশারফ হোসেন সুমন, পরিচালক শাহিদ উল মুনির, পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন, স্মার্ট টেকনোলজির পরিচালক মুজাহিদ আল বেরুনী সুজন, গ্লোবাল ব্রান্ড প্রাইভেট লিমিটেডর মহা ব্যবস্থাপক সমির দাস, সিলেট শাখার ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ বিন আব্দুর রশীদ, জয়েন সেক্রেটারি তারেক হাসান, কোষাধ্যক্ষ পার্থ চৌধুরী, কার্যনির্বাহী সদস্য মুজিবুর রহমান স্বাধীন, আহমেদ মাসুদ হায়দার জালালাবাদী প্রমুখ।

এর আগে নবম সাধারন সভায় কার্যকরী কমিটির নানা কর্মসূচি তুলে ধরা হয়। পাশাপাশি আইটি আইনের দিক নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়। পরে ২০১৮-২০১৯ সালের বাজেট উপস্থাপন করা হয়।

সভায় বক্তারা আরো বলেন, প্রযুক্তির যুগে কম্পিউটার শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। এখন কম্পিউটারে যে যত পারদর্শী সে তত এগিয়ে। তাই সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে কম্পিউটার ব্যবহার বাড়াতে হবে। কম্পিউটার এখন বেচেঁ থাকার একটি উপকরণ বলেও বক্তারা উল্লেখ করেন।

সভায় বিসিএস কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার বলেন, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবসার সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে নানাবিধ পরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়নে কাজ করছে। এই ধারাবাহিকতায় গত ২২ জুলাই চালু হয়েছে ‘এমআরপি নীতিমালা ২০১৮’ এবং ‘ওয়ারেন্টি নীতিমালা ২০১৮’। দেশব্যাপী এমআরপি নীতিমালা ২০১৮ ও ওয়ারেন্টি নীতিমালা ২০১৮ অধিকতর কার্যকরভাবে বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া নিয়ে বিসিএস কার্যনির্বাহী কমিটি কার্যক্রম পরিচালনা করছে।






Related News

Comments are Closed