Main Menu
শিরোনাম
জৈন্তাপুরে শুকসারী ঘাট নির্মাণে গচ্ছা গেল ২০ লক্ষ টাকা         ‘জাফলংয়ের সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনুন’         ধানের শীষ প্রতীক পেলেন ড. রেজা কিবরিয়া         শ্রীমঙ্গলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস পালিত         গোলাপগঞ্জে দুই ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার         সিলেটে একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতীক সিংহ         সিলেটের ৬টি আসনের প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ         গোয়াইনঘাটে গরুচোরদের হামলায় নিহত ১         হবিগঞ্জে ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার         পীরেরবাজারে ট্রাক চাপায় স্কুলছাত্র নিহত         গোলাপগঞ্জে যুবদল সভাপতি গ্রেফতার         মৌলভীবাজারে ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার        

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নজরদারীতে

প্রকাশিত: ১০:০৩:৪০,অপরাহ্ন ২৬ নভেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ২৮ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক : নির্বাচন উপলক্ষে ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটারসহ সব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নজরদারীতে থাকবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ। এসব মাধ্যমে নির্বাচন নিয়ে অপপ্রচার করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার বিটিআরসি মোবাইল অপারেটরসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বৈঠকের পর নির্বাচন কমিশন সচিব এসব তথ্য জানিয়েছেন। বিটিআরসি, এমটিআরসি, এমটিএমসি, সাইবার ক্রাইম ইউনিটসহ সরকারের সংশ্লিষ্টরা এ বিষয়টি নজরদারী করবে।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনও সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে প্রোপাগান্ডা ছড়িয়ে কেউ যাতে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ বা বানচাল করতে না পারে সেজন্য সংশ্লিষ্টরা চব্বিশ ঘণ্টা মনিটর করবে। অধিকাংশ ফেসবুক আইডি নজরদারিতে থাকবে। কেউ প্রোপাগান্ডা ছড়ালে তাকে চিহ্নিত করে ইসির সম্মতিতে বিদ্যমান আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এক্ষেত্রে ডিজিটাল আইন, আইসিটি অ্যাক্টসহ যেসব আইন রয়েছে তার আলোকেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়া বন্ধ করা যায় না। যারা এটি ব্যবহার করে গুজব ছড়াবে, তাদের চিহ্নিত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিটিআরসিসহ সংশ্লিষ্ট দফতর নির্বাচনকালীন সময় ইসির সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে বলেও তিনি জানান। পরবর্তীতে তাদের সঙ্গে বসে বিষয়টি ফলোআপ করা হবে বলেও জানান নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ।






Related News

Comments are Closed