Main Menu
শিরোনাম
‘জাফলংয়ের সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনুন’         ধানের শীষ প্রতীক পেলেন ড. রেজা কিবরিয়া         শ্রীমঙ্গলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস পালিত         গোলাপগঞ্জে দুই ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার         সিলেটে একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতীক সিংহ         সিলেটের ৬টি আসনের প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ         গোয়াইনঘাটে গরুচোরদের হামলায় নিহত ১         হবিগঞ্জে ৭ প্রার্থীর মনোনয়ন প্রত্যাহার         পীরেরবাজারে ট্রাক চাপায় স্কুলছাত্র নিহত         গোলাপগঞ্জে যুবদল সভাপতি গ্রেফতার         মৌলভীবাজারে ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার         সুনামগঞ্জে ৯ জনের প্রার্থীতা প্রত্যাহার        

সিলেটের শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী সুজিত ও শোভা

প্রকাশিত: ৯:২০:১৯,অপরাহ্ন ১৭ নভেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ৫৪ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম: সিলেট নগরীর কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী প্রতিযোগিতা-২০১৮ এর গ্র্যান্ড ফাইনাল। প্রথম প্রতিযোগিতায় যৌথভাবে সেরা কণ্ঠশিল্পী হয়েছেন সুনামগঞ্জের সুজিত বৈষ্ণব ও সিলেটের ইসরাত জাহান শোভা।

শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় হলভর্তি দর্শকদের উপস্থিতিতে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই শুরু হয়। প্রতিযোগিতার বিচারকরা গান শুনে নির্বাচন করেন দুই সেরাকে। ব্যতিক্রমী এ আয়োজনে সেরাদের হাতে গ্র্যান্ড ফাইনালের পুরস্কার তুলে দেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম।

এর আগে সন্ধ্যায় অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্বে নৃত্য পরিবেশন করে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীদের সংগঠন সিলেট বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয় এবং বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীদের সংগঠন রাগীব-রাবেয়া ইনস্টিটিউট।

উদ্বোধনী পর্বে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি এমন আয়োজনের ভূয়সী প্রশংসা করে ভবিষ্যতে তার পক্ষ থেকে প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে সবরকম সহযোগিতার কথা ব্যক্ত করেন।

গ্রীন ডিজঅ্যাবলড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ) এর আয়োজনে ও বেঙ্গল অ্যাডভার্টাইজিং এর সহযোগিতায় অনুষ্ঠানে বিশেষ সহযোগিতায় ছিল সম্মিলিত নাট্য পরিষদ, সিলেট।

শ্রেষ্ঠ প্রতিবন্ধী কণ্ঠশিল্পী প্রতিযোগিতা বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব সংস্কৃতিকর্মী রজত কান্তি গুপ্তের সঞ্চালনায় প্রতিযোগিতায় প্রধান বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠযোদ্ধা তিমির নন্দি, সংগীত শিল্পী হিমাংশু বিশ্বাস, রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী অনিমেষ বিজয় চৌধুরী ও কণ্ঠশিল্পী রাজিয়া সুলতানা লাভলী লস্কর।

চূড়ান্ত পর্বের প্রতিযোগিতায় সেরা ২০ জনের মধ্যে দুইটি বিভাগের ছয়জন প্রতিযোগী কণ্ঠযুদ্ধে অংশ নেয়। দর্শকের মুহুর্মুহু করতালিতে অডিটোরিয়াম হল ছিল প্রাণবন্ত। গ্র্যান্ড ফাইনালের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী ভারতীয় হাই কমিশনার সিলেট এর সেকেন্ড সেক্রেটারি মি. গিরিষ চন্দ্র পূজারী, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. আজবাহার আলী শেখ, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া প্রতিযোগীদের উপহারদাতা মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম, সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক নিবাস রঞ্জন দাস, বেঙ্গল অ্যাডভার্টাইজিং এর সিইও মাহমুদুর রহমান, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সভাপতি ও প্রতিযোগিতার উপদেষ্টা মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু, আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সহ-সভাপতি মোকাদ্দেস বাবুল, জিডিএফ এর চেয়ারম্যান কবির আহমদ, ভাইস চেয়ারম্যান ও প্রধান শিক্ষক এ এইচ ইসরাইল আহমদ, বেঙ্গল অ্যাডভার্টাইজিং এর হেড অব অপারেশন রাশেদ খান, জিডিএফ এর কোষাধ্যক্ষ মাছুম আহমদ চৌধুরী, সদস্য প্রমেশ দত্ত, ম্যানেজার স্বপন মাহমুদ, রহমানিয়া প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের সভাপতি আতাউর রহমান খান সামছু প্রমুখ।

আমন্ত্রিত বিচারক তিমির নন্দি দর্শকদের বিশেষ অনুরোধে দুটি গান পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠানে সেরা ২০ প্রতিযোগির প্রত্যেককে মেডেল ও সনদপত্র দেওয়া হয়। রাত সাড়ে ৯টায় এই গ্র্যান্ড ফাইনাল অনুষ্ঠান শেষ হয়।
পুরো অনুষ্ঠান ইশারা ভাষায় সঞ্চালনা করেন জেমিমা আক্তার। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক সাবিনা ইয়াসমিন, খালেদা আক্তার, নমিতা রাণী দেব, আল-আমিন আহমদ নাঈম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেন, প্রতিবন্ধীদের মধ্যেও সুস্থ-সবল মানুষের মতো প্রতিভা রয়েছে। আজকের এই অনুষ্ঠানে তাদের মেধা দেখে আমিসহ উপস্থিত দর্শকবৃন্দ মুগ্ধ হয়েছেন। প্রতিবন্ধীরা বোঝা নয়, তারা এই দেশের সম্পদ। তাদেরকে মূলস্রোতধারায় আনতে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে কাজ করতে হবে।

এ সময় সরকার কর্তৃক গ্রীন ডিজঅ্যাবলড ফাউন্ডেশন (জিডিএফ) অফিস ভবন তৈরিসহ সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন তিনি।






Related News

Comments are Closed