Main Menu
শিরোনাম
‘অসমাপ্ত উন্নয়ন সমাপ্ত করতে নৌকা মার্কায় ভোট দিন’         সিলেট-২ আসনে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন মুহিবুর রহমান         সিকৃবিতে শোকর‌্যালি ও আলোক প্রজ্জ্বলন         ধানের শীষে ভোট দিয়ে দুঃশাসনের জবাব দিন: শফি চৌধুরী         বিশ্বনাথে বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধে প্রশাসনের শ্রদ্ধাঞ্জলি         সিলেট জেলা বিএনপির উপদেষ্টা আব্দুল হান্নানের ইন্তেকাল         দক্ষিণ সুরমা উপজেলা প্রশাসনের শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন         ইলিয়াসপত্নী লুনার প্রার্থীতা স্থগিতে এলাকাবাসীর প্রতিক্রিয়া         ৯৯৯-এ কল; মধ্যরাতে অসুস্থ দুই নারীর প্রতি পুলিশের মানবিকতা!         ‘মানুষ লুটপাটকারীদের মিথ্যা আশ্বাসে আর বিভ্রান্ত হবেনা’         বিশ্বনাথে হঠাৎ থেমে গেল নির্বাচনী আমেজ!         সুনামগঞ্জে পরিযায়ী পাখি বিক্রেতাকে ৪ মাসের দন্ড        

যাত্রীর শিশুকে নিজের স্তন্যপান করালেন বিমানবালা

প্রকাশিত: ১১:৪৬:৪৬,অপরাহ্ন ১৪ নভেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ৩৫ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: মাতৃত্বের এক অনন্য নজির গড়লেন এক ফিলিপিনো বিমানবালা। বিমানে এক যাত্রীর ক্ষুধার্ত শিশুকে নিজের স্তন্যপান করিয়ে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন বিমানবালা প্যাট্রিসা।

ঘটনাটি ফিলিপাইনের সামাজিক মাধ্যমেও সাড়া জাগিয়েছে। ওই বিমানবালাকে অভিবাদন জানিয়েছেন হাজারো মানুষ।

ঘটনাটি ফিলিপাইন এয়ারলাইনসের একটি বিমানের।

ফিলিপিনো টাইমসের এক প্রতিবেদনে প্রকাশ, ওই বিমানবালার নাম প্যাট্রিসা ওরগানো। বয়স ২৪ বছর। ফিলিপাইনের একটি শিশুবিষয়ক গণমাধ্যমে বলা হয়, বিমানটি আকাশে উড়ার সময়ে এক শিশুর কান্নার শব্দ শুনতে পান প্যাট্রিসা।

তিনি খোঁজ নিয়ে জানেন, খিদের জ্বালায় কাঁদছে শিশুটি। অথচ কোনো খাবার নেই শিশুটির জন্য।

কারণ শিশুটির জন্য আনা ‘টিনের দুধ’ শেষ হয়ে গিয়েছে। ওদিকে বিমানের ভিতরেও তেমন কোনও বিকল্প ব্যবস্থা ছিল না। শিশুটির মা দুশ্চিন্তায় কান্না করছিলেন।

প্যাট্রিসা তৎক্ষণাৎ শিশুটির মাকে জানান, যদি কিছু মনে না করেন তো তিনি শিশুটিকে স্তন্যপান করাতে চান। অনুমতি পেলে শিশুটিকে নিয়ে স্তন্যদান করেন প্যাট্রিসা।

এরপর ওই শিশুটি ঘুমিয়ে না পড়া পর্যন্ত শিশুটিকে তিনি আগলে রাখেন।

এ ঘটনায় ফ্লাইটের পরিচালকও তাকে সাহায্য করেন বলে জানা গেছে। শিশুটি ঘুমিয়ে পড়লে তার মায়ের কাছে দিয়ে আসেন ওই বিমানবালা।

এ ঘটনার পর প্যাট্রিসা তার ফেসবুকে পেজে কান্নারত শিশুটিকে বুকের দুধ খাওয়ানোর একটি ছবি পোস্ট করলে কিছুক্ষণের মধ্যে তার ওই পোস্টটি ভাইরাল হয়ে পড়ে। পোস্টটি শেয়ার হয় ১৮ হাজার বার।

প্যাট্রিসার এই অসাধারণ কাজটির প্রশংসা করে নানা রকম মন্তব্য করেন নেটিজেন।

এ বিষয়ে প্যাট্রিসা তার ফেসবুকে জানিয়েছেন, আমি যখন তার মাকে শিশুটিকে দিয়ে আসি তখন তিনি আমাকে অনেক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। আমিও সৃষ্টিকর্তার কাছে অশেষ ধন্যবাদ জানাই। কেননা তিনি মায়েদের বুকে দুধ দিয়ে শিশুদের জন্য একটা আশ্রয়স্থল তৈরি করে দিয়েছেন।






Related News

Comments are Closed