Main Menu

নীলফামারীতে আলু চাষে ব্যস্ত কৃষকরা

মোঃ রিমন চৌধুরী, নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি: কৃষি সমৃদ্ধ নীলফামারী জেলার প্রধান ফসল ধান, আলু ও ভূট্টা। আগাম জাতের ধান ঘরে তুলে এখন আলু চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন নীলফামারীর কৃষকরা। তবে কৃষি বিভাগ বলছে, আগাম আলু চাষ লাভজনক হওয়ায় এ ফসলের দিকে ঝুঁকছে চাষিরা।

এক সময়ের হত-দরিদ্র অঞ্চল হিসেবে পরিচিত নীলফামারী এখন বদলে যাওয়া অঞ্চল। অক্লান্ত শ্রম আর প্রচেষ্টায় স্বাবলম্বী হওয়ার পথে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে এখানকার খেটে খাওয়া মানুষগুলো।

জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুড়ে দেখা গেছে আগাম ধান কাটার পাশাপাশি শুরু হয়েছে আগাম আলু চাষ। নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলায় গোটা অক্টোবর মাস জুড়েই আলুর রোপন প্রক্রিয়া চলে। আগাম আলু ৬০ থেকে ৬৫ দিনে বাজারে আসতে শুরু করে এবং দাম ভালো পাওয়া যায়। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় এ বছর কৃষকেরা ভাল ফলনে বেশ আশাবাদী। অল্প খরচে অধিক উৎপাদন করতে বিভিন্ন কৌশল ব্যবহার করার পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ

জমি উঁচু হওয়ায় ও অল্প সময়ে ভালো ফলন পাওয়ায় আলু চাষে কৃষকদের আগ্রহ বেড়েছে বলে জানান নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলা কৃষি কমকর্তা এনামুল হক। তিনি বলেন, ‘কোন কৃষকের কাছে ভালো বীজ আছে সেই সোর্চগুলো অন্য কৃষকদের বলি। পাশাপাশি চাষ করতে যে উন্নত প্রযুক্তির দরকার সে বিষয়ে কৃষকদের পরামর্শ দেই। এখানে আমরা দলীয় পর্যায়ে, ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ করে তাদের পরামর্শগুলো দিয়ে থাকি।’
চলতি বছর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ হাজার হেক্টর। যা গত বছরের তুলনায় ৫’শ হেক্টর বেশি।






Related News

Comments are Closed