Main Menu
শিরোনাম
সুনামগঞ্জ সফরে ভারতীয় হাই কমিশনার         বিশ্বনাথে মেছো বাঘ আটক         ছাতকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষাথীদের বিদায়ী অনুষ্টান         জৈন্তাপুরে ট্রাক চাপায় শিশু নিহত, অাহত ৫         ছাতকে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু         লাউড় রাজ্যের রাজবাড়িতে প্রত্নতত্ব অধিদপ্তরের উৎখনন         সিলেটে মাজার জিয়ারতে স্পিকার শিরীন শারমিন         সুনামগঞ্জ সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ’র পতাকা বৈঠক         জাফলংয়ে ভারতীয় তীর খেলার বইসহ আটক ২         কমলগঞ্জে চার খাবার হোটেলে জরিমানা         প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদকের মুক্তির দাবিতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন         হবিগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে ডাকাতি        

নবীনদের বরণ করতে প্রস্তুত ইবি

প্রকাশিত: ৫:০৭:৫৯,অপরাহ্ন ০৩ নভেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ২৮ বার পঠিত

শাহাব উদ্দীন অসীম, ইবি প্রতিনিধি: কুয়াশার চাদর মাড়িয়ে প্রকৃতিতে হাজির হয়েছে শীত। শীতের সকালকে মিষ্টি করতে সূর্যিমামা হাজির হয় তার আলোর ছটা নিয়ে। এসময় রোদ পোহাতে ও রোদের সাথে আলিঙ্গন করতে ছোট-বড়, ছেলে-বুড়োরা হাজির হয় রোদের ধারে। অতিথি পাখির কলরবে ভরে যায় চারপাশ। ক্যাম্পাসের লেক, পুকুর, বাগান ও বিভিন্ন স্থানে এসে আসন গেড়েছে অতিথি পাখিরা। অতিথি পাখিদের পিছু ধরে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ক্যাম্পাসে হাজির হচ্ছে হাজার হাজার পরীক্ষার্থী, ইচ্ছা দক্ষিণবঙ্গের সবচেয়ে বড় ক্যাম্পাসে পড়ব। হ্যাঁ গল্পটা দক্ষিণ বঙ্গের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের। রোববার (৪ নভেম্বর) থেকে শুরু হচ্ছে দুদিনব্যাপী ভর্তি উৎসব। আসন্ন উৎসবকে আরও মুখর ও প্রাণজ্জ্বল করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সৌন্দর্যবর্ধন, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা, নিরাপত্তা কর্মসূচী, ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের সহযোগিতা করাসহ নানামুখী উদ্যোগ হাতে নিয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক দিয়ে ঢুকতেই পরীক্ষার্থীরা দেখতে পারবে বিশ^বিদ্যালয়ের সেচ্ছাসেবী বিভিন্ন সংগঠনকে। বিশেষ করে বিএনসিসি ও রোভার স্কাউদের সদস্যরা সার্বক্ষনিক মূল ফটক থেকে শুরু করে বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করবে। তারা সর্ব অবস্থায় পরীক্ষার্থীদের সাহায্য সহযোগিতা করবে। শিক্ষার্থীদের ব্যাগ ও অন্যান্য জিনিস পত্র রাখার জন্য স্টল বসেছে মূল ফটকের সামনে। এছাড়াও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সদস্যদের দেখা যাবে বিভিন্ন স্থানে। বিশ^বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে করা হয়েছে গাড়ী, মোটরসাইকেল ও অন্যান্য যানবহন রাখার ব্যবস্থা। তবে ক্যাম্পাসের ভিতর সকল প্রকার যানবহন চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। অসুস্থ শিক্ষর্থীদের জন্য মূল ফটকের সামনে সার্বক্ষনিক একটি এম্বুলেন্স থাকবে, যা দিয়ে তারা চলাচল করতে পারবে। এছাড়াও অতিরিক্ত নিরাপত্তার জন্য মূল ফটকে আর্চ ওয়ে গেট, ও কেন্দ্রের সামনে মেটাল ডিটেক্টর ব্যবহার করা হবে। এছাড়াও পুরো ক্যাম্পাসকে পর্যবেক্ষন করার জন্য সিসি ক্যামেরা তো আছেই। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রকার নির্দেশ প্রচার করা হচ্ছে মাইকিং করে।

এদিকে ভর্তি পরীক্ষাকে স্বাগত জানাতে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে হল প্রশাসন ও হলের শিক্ষার্থীরা। বিশেষ করে জেলা কল্যাণের পক্ষ থেকে চালানো হচ্ছে প্রচার প্রচারণা। পরীক্ষার্থীরা নিজ নিজ জেলার ভাই বোনদের সাথে যোগাযোগ করে চলে আসছে হলগুলোতে। ইতোমধ্যে হলের রুমগুলোতে দেখা যাচ্ছে পরীক্ষার্থীদের ভিড়। দূরের জেলা বিশেষ করে চট্টগ্রাম, সিলেট, বৃহত্তর রংপুর কিংবা দিনাজপুরের ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা চলে এসেছে পরীক্ষা দিতে। নিকস্থ জেলার পরীক্ষার্থীরা সন্ধ্যায় কিংবা পরীক্ষার দিন সকালে হাজির হবে। শিক্ষার্থীদের হল ও ক্যাম্পাস গেটের সামনে বসেছে নানা প্রকার খাবার দোকান।

উল্লেখ্য, প্রতিদিন ভর্তি পরীক্ষা ৪ শিফটে অনুষ্ঠিত হবে। এবছর ভর্তি পরীক্ষার জন্য সারাদেশ থেকে ৪৮ হাজার ৭ শত ১৯ জন পরীক্ষার্থী ফরম উত্তোলন করেছে। ভর্তির সুযোগ পাবে মোট ২২৭৫ জন শিক্ষার্থী।






Related News

Comments are Closed