Main Menu
শিরোনাম
সুনামগঞ্জ সফরে ভারতীয় হাই কমিশনার         বিশ্বনাথে মেছো বাঘ আটক         ছাতকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষাথীদের বিদায়ী অনুষ্টান         জৈন্তাপুরে ট্রাক চাপায় শিশু নিহত, অাহত ৫         ছাতকে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু         লাউড় রাজ্যের রাজবাড়িতে প্রত্নতত্ব অধিদপ্তরের উৎখনন         সিলেটে মাজার জিয়ারতে স্পিকার শিরীন শারমিন         সুনামগঞ্জ সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ’র পতাকা বৈঠক         জাফলংয়ে ভারতীয় তীর খেলার বইসহ আটক ২         কমলগঞ্জে চার খাবার হোটেলে জরিমানা         প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদকের মুক্তির দাবিতে সুনামগঞ্জে মানববন্ধন         হবিগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে ডাকাতি        

‘২০৪০ সালের মধ্যে সমৃদ্ধ ও উন্নত দেশ হবে বাংলাদেশ’

প্রকাশিত: ৭:৫২:১৩,অপরাহ্ন ১৮ অক্টোবর ২০১৮ | সংবাদটি ৩৯ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম: বর্তমান সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে আগামী ২০৪০ সালের পুর্বেই বাংলাদেশ একটি সমৃদ্ধ উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত এমপি।
বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) সিলেটের জালালাবাদ গ্যাস টি এন্ড ডি সিস্টেম লিঃ এর সিবিএ এর অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
অর্থমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হবার পর আমরা যখন ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছি তখনই আমাদের উপর আঘাত এসেছে। বঙ্গবন্ধু হত্যা আমাদের জন্য বিরাট ক্ষতি বয়ে এনেছিল। এরপর প্রায় ১৬ বছর সামরিক শাসনে আমাদেরকে আরো পশ্চাৎমূখী করে। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, ‘আমাদের মাটি আছে, মানুষ আছে’ আমরা পিছিয়ে থাকবোনা। এ কথাই সত্যি হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশ। আরো পাঁচটি বছর যদি এই নেতৃত্ব বজায় থাকে, আওয়ামী লীগ সরকারে থাকে, তাহলে বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে উন্নত ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত দেশ হিসেবে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে।
তিনি আরো বলেন, আমাদের দক্ষ শ্রমিক আর কৃষকের কারণে আজ আমরা অর্থনীতির সবকটি সূচকে এগিয়ে। তিনি বাংলাদেশের তৈরি পোষাক খাতের শ্রমিকদের দৃষ্টান্ত টেনে এনে বলেন, আমাদের এই খাতে শ্রমিকরা অত্যন্ত দক্ষ। আমাদের শুধু তুলা আমদানি করতে হয়, এর থেকে কাপড়-সূতা তারাই তৈরি করে নেয়। আজ আমরা তৈরি পোষাকে বিশ্বে দ্বিতীয়। তিনি বলেন, এখন আমরা সঠিক পথেই আছি। আমাদের অর্থনীতি এখন আগের চেয়ে অনেক সমৃদ্ধ। আমাদের যে ভিশন ছিলো ২০২১, ইতিমধ্যেই আমরা তা অর্জনের দ্বারপ্রান্তে রয়েছি। অর্থমন্ত্রী উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য আওয়ামী লীগকে পুননির্বাচিত করার আহবান জানান।
বিশেষ আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদুত একে মোমেন। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, জ্বালানিখাতে বর্তমান সরকারের দুরদর্শী পরিকল্পনার কারণে দেশের অর্থনীতি আজ সমৃদ্ধ। আমাদের আর পেছনে তাকানোর সুযোগ নেই। আবারো এই সরকারকে নির্বাচিত করে এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে।
জালালাবাদ গ্যাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌ. এহসানুল হক পাটোয়ারী বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে সবচেয়ে বেশি জোর দেয়া হয়েছে জ্বালানি নিরাপত্তার উপর। আমাদের উৎপাদিত গ্যাস আমাদের চাহিদা মেটানোর জন্য যথেষ্ট নয়, এজন্য জ্বালানি সংকট নিরসনে এলএনজি আমদানি করা হয়েছে। যা ইতিমধ্যে কর্ণফূলী গ্যাস কোম্পানিতে বিতরণ করা হচ্ছে। এতে চট্টগ্রামে শিল্পক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে। ধীরে ধীরে তা পাইপলাইনের মাধ্যমে সারাদেশে বিতরণ করা হবে। এতে সিলেটসহ অন্যান্য জায়গায় শিল্প বিকশিত হবে। তবে এই উচ্চ মূল্যের গ্যাস যাথে অপচয় নাহয় সেদিকে আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে।
জালালাবাদ গ্যাস সিবিএ সভাপতি মুরুলী সিংহ এর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আশফাক আহমদ, জাতীয় শ্রমিকলীগের সহসভাপতি প্রকৌ. এজাজুল হক এজাজ জালালবাদ গ্যাস সিবিএর সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, যুগ্ম সম্পাদক ফজলুল বারী প্রমুখ।

এদিকে, জালালাবাদ গ্যাস অডিটোরিয়ামে জালালাবাদ গ্যাস কর্মচারী ইউনিয়নের অভিষেক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে নবগঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন সম্পর্কিত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, ‘জিরো জিরো জিরো মিলে ফলাফল জিরো হবে।’
অর্থমন্ত্রী বলেন,‘‘আমি আগে বলে আসছি, সব জিরো একসঙ্গে মিললে পরে, ফল জিরোই হবে।
তবে বিএনপি যদি নির্বাচনে আসে এবং তাদের ড. কামাল ও বদরুদ্দোজারা সমর্থন দেন, তাহলে তাদের একটা এগজিসটেন্স হবে, আদারওয়াইজ তারা নন এগজিসটেন্স গ্রুপ। যারা ঐক্য প্রক্রিয়া করছেন এদের কোন ভবিষৎত নেই। তারা জিরো।’’
আগামী ২৩ অক্টোবর সিলেটে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের সমাবেশ পুলিশি অনুমতি না পাওয়া প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, কেন পুলিশ অনুমতি দিলনা আমার বোধগম্য নয়, এটা দিলেও কোন ক্ষতি হবে সেটা আমার মনে হয়না।

এছাড়া, মন্ত্রী বৃহস্পতিবার বিকালে সিলেটে নবনির্মিত সিভিল সার্জন অফিসের ভবন উদ্বোধন এবং রিজিওনাল টিবি রেফারেন্স ল্যাবরেটরী (বিএসএল-৩) এর উদ্বোধন করেন। নগরীর শাহী ঈদগাহে বক্ষব্যাধি হাসপাতাল চত্বরে কন্টেইনার নির্ভর এ ল্যাবরেটরী স্থাপন করা হয়েছে।






Related News

Comments are Closed