সর্বশেষ
সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়কে গাছ কর্তনে অনিয়ম         সুনামগঞ্জে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে ১ জনের মৃত্যু         কমলগঞ্জে মস্তকবিহীন লাশের পরিচয় শনাক্ত, আটক ৭         শ্রীমঙ্গলে স্বামীর মোটরসাইকেল থেকে পড়ে স্ত্রী নিহত         বিশ্বনাথে গ্রেফতার ১৭ জামায়াত নেতা কারাগারে         কোম্পানীগঞ্জে ডাকাতের হামলায় ৩ ব্যবসায়ী আহত         সিলেটে ভূমিহীনদের মধ্যে খাস জমি বন্দোবস্তের দাবি         বিশ্বনাথে অসামাজিক কর্মকান্ড বন্ধের দাবিতে স্মারকলিপি         হবিগঞ্জে সড়কে গণডাকাতি         সিলেটে প্রবাসীর বাড়িতে তত্ত্বাবধায়ক মহিলা খুন         বিশ্বনাথে জামায়াত নেতা লোকমান সহ ১৭ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার         বিশ্বনাথে মাজার নিয়ে অপপ্রচার বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন        

মিনায় পৌঁছেছেন হাজিরা

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ১১:৩৪:৩৩,অপরাহ্ন ১৯ আগস্ট ২০১৮ | সংবাদটি ৬১ বার পঠিত

ধর্ম ডেস্ক: পবিত্র হজ পালন করতে মিনায় পৌঁছেছেন হজযাত্রীরা। এর মাধ্যমেই শুরু হয়ে গেছে হ‌জের আনুষ্ঠা‌নিকতা। মুসল্লিরা মিনা, আরাফাত ময়দান, মুজদালিফা ও মক্কায় আগামী পাঁচদিন অবস্থান করবেন।

আনুষ্ঠা‌নিকতা শুরু হয়েছে শনিবার (১৮ আগস্ট) থে‌কে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা শনিবার রাতেই কেউ গাড়িতে, কেউবা হেঁটে মিনায় পৌঁছান। এদিন সরকা‌রি ও বেসরকা‌রি ব্যবস্থাপনা সোয়া এক লা‌খেরও বেশি বাংলাদেশি হজযা‌ত্রী অন্য হাজিদের মতো মিনায় গেছেন।

সেখান থেকে তারা আজ রবিবার (১৯ আগস্ট) আরাফাতের ময়দানের উদ্দেশে রওনা হবেন। সৌদি আরবে ৯ জিলহজ অর্থাৎ আগামীকাল সোমবার হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। হজের খুতবা শোনা, এক আজানে জোহর ও আসরের নামাজ আদায় করবেন মুসল্লিরা। সন্ধ্যায় তারা মুজদালিফার উদ্দেশে আরাফাতের ময়দান ত্যাগ করবেন।

হজের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে ৯ জিলহজে। শনিবার রাতে এশার নামাজের পর মুসল্লিরা মক্কার মসজিদ আল হারাম থেকে ৯ কিলোমিটার দূরত্বে মিনায় যান। সেখানে সারাদিন অবস্থানের পর তালবিয়া পাঠ করে মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে নিজের উপস্থিতি জানান দিয়ে পাপমুক্তির আকুল বাসনায় তারা আরাফাতের ময়দানে সমবেত হবেন।

অন্যরা সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত আরাফাতের ময়দানে থাকবেন। কেউ পাহাড়ের কাছে, কেউ সুবিধাজনক জায়গায় বসে ইবাদত-বন্দেগি করবেন। মসজিদে নামিরাহ থেকে হজের খুতবা পাঠ করা হবে।

‘লাব্বায়েক, আল্লাহুম্মা লাব্বায়েক, লাব্বাইকা লা শারিকা লাকা লাব্বায়েক, ইন্নাল হামদা ওয়ানিন’মাতা লাকা ওয়ালমুলক’- এই ধ্বনিতে ওইদিন মুখর হবে আরাফাতের ময়দান। সাদা ইহরাম বাঁধা অবস্থায় লাখ লাখ হাজির পদচারণায় আরাফাতের ময়দান পরিণত হবে শুভ্রতার সমুদ্রে। ১০ জিলহজ সূর্যোদয়ের পর জামারায় পাথর নিক্ষেপের জন্য রওনা দেবেন তারা। সূর্য পশ্চিম দিকে হেলে যাওয়ার আগেই জামারাতুল আকাবায় (বড় শয়তান) সাতটি পাথর নিক্ষেপ করা হবে। পাথর নিক্ষেপের পর আল্লাহর সন্তুষ্টির আশায় তারা পশু কোরবানি দেবেন। ১১ ও ১২ জিলহজ মিনায় অবস্থান করে সূর্য হেলে পড়ার পর প্রতিদিন ছোট, মধ্য ও বড় জামারায় পাথর নিক্ষেপ করে ১২ তারিখ সূর্যাস্তের আগে তারা মিনা ত্যাগ করবেন।

মক্কা থেকে মিনার দূরত্ব প্রায় ৯ কিলোমিটার। আরাফাতের ময়দান থেকে মুজদালিফার দূরত্বও প্রায় ৯ কিলোমিটার। মুজদালিফা থেকে মিনার দূরত্ব প্রায় সাড়ে ৫ কিলোমিটার। কিছু হজযাত্রী হেঁটে হজের এ আমলগুলো করে থাকেন।






Comments are Closed