Main Menu
শিরোনাম
নিখোঁজের দেড় মাস পর গৃহবধূর কংকাল উদ্ধার, আটক ১         জৈন্তাপুরে সন্ত্রাসী হামলায় ছাত্রলীগ নেতাসহ আহত ১০         গোলাপগঞ্জে নাহিদের নির্বাচনী সভায় হামলা, আহত ৩         তাহিরপুর থানার ওসিকে প্রত্যাহারের দাবি         মোগলাবাজারে ডাকাতি, ৬০ লাখ টাকার মাল লুট         গোলাপগঞ্জে জাসাস সভাপতি গ্রেফতার         বিশ্বনাথে দুটি গ্রামে ৪৮টি গরু চুরি         বিশ্বনাথে মিছিল করতে পারেনি বিএনপি         শ্রীমঙ্গলে গরীব শিক্ষার্থীদের মাঝে পোষাক বিতরণ         পতাকার ফেরিওয়ালা বকুল মিয়া         বিশ্বনাথে প্রতিপক্ষের মামলায় ছাত্রদল নেতা গ্রেপ্তার         গোলাপগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু        

গ্রেফতার ২২ ছাত্র দু’দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত: ১০:৪৫:০৯,অপরাহ্ন ০৭ আগস্ট ২০১৮ | সংবাদটি ১৭৯ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করতে গিয়ে গ্রেফতার ইস্ট ওয়েস্ট, নর্থ সাউথ, সাউথইস্ট ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ২২ ছাত্রের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

পুলিশের ওপর হামলা ও ভাঙচুরের পৃথক দুই মামলায় মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) ঢাকা মহানগর হাকিম আবদুল্লাহ আল মাসুদ এই আদেশ দেন।

এর আগে এই ২২ ছাত্রের মধ্যে বাড্ডা থানা-পুলিশ ১৪ জনকে এবং ভাটারা থানা-পুলিশ ৮ জনকে আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে।

বেলা ৩টার দিকে আদালতের এজলাসে তোলা হলে স্বজনদের দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন ছাত্ররা। তাদের আইনজীবীরা আদালতের কাছে দাবি করেন, পুলিশ ধরে নিয়ে থানায় ফেলে নির্যাতন করেছে। ক্লাস শেষে বাসায় ফেরার পথে কয়েজনকে গ্রেফতার করেছে।

বাড্ডা থানার মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জুলহাস মিয়া রিমান্ড আবেদনে বলেন, সোমবার (৬ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় এবং অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা আফতাব নগর মেইন গেটের রাস্তায় যান চলাচলে বাধা দেয়। এ সময় তারা লাঠিসোঁটা, ইটপাটকেল দিয়ে রাস্তার গাড়ি ভাঙচুর করে। পুলিশ বাধা দিলে পুলিশের ওপর আক্রমণ করে আসামিরা। এ ঘটনার ইন্ধনদাতা এবং অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের জন্য আসামিদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা জরুরি।

অন্যদিকে ভাটারা থানার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই হাসান মাসুদ রিমান্ড আবেদনে বলেন, আসামিরা বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার অ্যাপোলো হাসপাতাল ও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় লোহার রড, লোহার পাইপ ও ইট দিয়ে পুলিশের ওপর হামলা করে। তারা বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলের আশপাশের দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাসার দরজা, জানালা ভাঙচুর করে। পলাতক আসামিরা জঙ্গি গোষ্ঠীর সক্রিয় সদস্য। তাদের গ্রেফতারের জন্য আসামিদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ প্রয়োজন।

অন্যদিকে, পুলিশ নিরপরাধ ছাত্রছাত্রীদের ধরে নিয়ে ভয়াবহ নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আসামিপক্ষের আইনজীবী এ কে এম মুহিউদ্দিন ফারুক।

ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রিদওয়ান আহমেদের আইনজীবী কবির হোসেন আদালতকে বলেন, পুলিশ ধরে নিয়ে থানায় ফেলে মেরে তার হাতের একটি আঙুল ভেঙে দিয়েছে। তৃতীয় পক্ষের যারা ষড়যন্ত্র করেছে তাদের পুলিশ গ্রেফতার না করে নিরীহ ছাত্রদের ধরে এনেছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীর বসুন্ধরা এলাকায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ও ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সোমবার সকাল থেকেই পুলিশের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ এ সময় কয়েক শ কাঁদানে গ্যাসের শেল ও রাবার বুলেট ছুড়ে। এ ঘটনায় অন্তত ২৫ শিক্ষার্থীকে আটক করে পুলিশ।






Related News

Comments are Closed