সর্বশেষ

নিজেকে নবী বলে দাবী করেন যে ইথিওপিয়ান

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ১:২২:৩৮,অপরাহ্ন ২২ জুলাই ২০১৮ | সংবাদটি ২৬ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক : ইথিওপিয়ান একজন নাগরিক আয়েলে। তিনি নিজেকে নবী বলে দাবি করেন।

একদিন দেশটির ওরোমিয়া অঞ্চলের ছোট গালিলি শহরে গিয়ে হাজির হলেন।

সেখানে সম্প্রতি মারা গেছেন এমন এক ব্যক্তির পরিবারের কাছে গিয়ে বিশাল এক গল্প ফাঁদলেন যে তিনি মৃত ব্যক্তিকে প্রাণ দিতে পারেন।

শোকসন্তপ্ত পরিবারকে তিনি শোনালেন সেইন্ট লাযারুসের গল্প।

যার মরদেহে যিশুখ্রিস্ট প্রাণ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন বলে বাইবেলে উল্লেখ রয়েছে।

এই গল্পে শোক সন্তপ্ত পরিবারটির মনে যেন আশার সঞ্চার হল।

গল্পটি তাদের এতই মনে ধরল যে তারা তাদের মৃত আত্মীয় বেলায়ের মরদেহ কবর থেকে তুলতে রাজি হয়ে গেলেন।

মরদেহটিকে জ্যান্ত করার জন্য যা করছিলেন আয়েলে তার একটি ভিডিও ইথিওপিয়াতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে।

মরদেহটি কবর থেকে তোলা হলে আয়েলে ঠিক তার উপর শুয়ে পরেন।

তার অসংখ্যবার চিৎকার করে উন্মাদের মতো বলতে থাকেন, ‘ওঠো, ওঠো’।

কিন্তু তাতে কোনা কাজ হল না।

মরদেহটি প্রাণ ফিরে পাওয়া তো দুরে থাক, একটি আঙুলও নাড়ল না।

সেসময় কয়েকজন অজ্ঞানও হয়ে গিয়েছিলেন।

মৃতের বাকি স্বজনেরা ভয়াবহ ক্ষেপে গেলেন। অতঃপর শুরু হল ধোলাই।

তিনি নিজেও সম্ভবত অচিরেই মরদেহ হয়ে যেতেন যদি সময়মত পুলিশ এসে না পৌঁছাত।

যদিও তার অর্থ এই নয় যে তিনি বেঁচে গেলেন।

পুলিশ এসে তার প্রাণ বাঁচালেও তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে গেলো।

স্থানীয় পুলিশ কমিশনার বিবিসিকে জানিয়েছেন, ইথিওপিয়াতে মরদেহকে বিকৃত করা বা তার অপব্যবহার করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

তিনি আরো জানান আয়েলে আসলে পেশায় একজন স্বাস্থ্যকর্মী এবং তিনি এখনো পুলিশের জিম্মায় রয়েছে।-বিবিসি বাংলা






Comments are Closed