Main Menu
শিরোনাম
কানাইঘাটে মামুনের লাশ কবর থেকে উত্তোলন         নবীগঞ্জে ট্রাক-অটোরিরিকশা সংঘর্ষে শিক্ষক নিহত         শ্রীমঙ্গলে একটি অজগর সাপ উদ্ধার         বাস বন্ধ করে সিলেটে পরিবহন শ্রমিকদের সমাবেশ, দুর্ভোগে যাত্রীরা         সিলেটে পল্লী বিদ্যুতের মিটার রিডাররা কর্মবিরতিতে         বিশ্বনাথে প্রবাসীর স্ত্রীর চুরির মামলায় বৃদ্ধ গ্রেফতার         কুলাউড়ায় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় চা শ্রমিকের মৃত্যু         কনে ছাড়াই বাড়ি ফিরলেন বর         বিশ্বনাথে একই রাতে দুটি বাড়িতে ডাকাতি, আহত ১         সম্মেলন সফলে বাউল কল্যাণ সমিতির সভা         দুই বছরেও উদ্ধার হওয়া লাশের পরিচয় মিলেনি         বিশ্বনাথে রুমি হত্যাকারীর ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন        

২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট পাস

প্রকাশিত: ৩:২৪:১১,অপরাহ্ন ২৮ জুন ২০১৮ | সংবাদটি ২১৬ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: আসন্ন ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট জাতীয় সংসদে পাস করা হয়েছে। আগামী ১ জুলাই ২০১৮ থেকে এ বাজেট কার্যকর হবে।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুন) সকাল সোয়া ১০টায় জাতীয় সংসদের ২১তম অধিবেশনে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৭১ হাজার ৮৩৩ কোটি ৮২ লাখ ৯২ হাজার টাকা ব্যয়ের অনুমোদন দিয়ে নির্দিষ্টকরণ বিল ২০১৮ উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

এ বছরই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের মেয়াদ পূর্ণ হচ্ছে। আগামী বছর ২৯ জানুয়ারি সরকার দায়িত্ব গ্রহণের ৫ বছর পূর্ণ হবে। সংবিধানে সরকারের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করার বিধান থাকায় আগামী ডিসেম্বরের শেষ দিকে একাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ফলে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটই বর্তমান সরকারের শেষ বাজেট।

এবারের বাজেটে ৫৯টি মন্ত্রণালয়ের মঞ্জুরির দাবির বিপরীতে ৪৪৮টি ছাঁটাই প্রস্তাব আনা হয়। এরমধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা এবং রেলপথ মন্ত্রণালয়ের দাবির ওপর আনীত ছাঁটাই প্রস্তাবের ওপর আলোচনা হয়।

সংসদে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির ৯ জন সংসদ সদস্য এসব ছাঁটাই প্রস্তাবের ওপর আলোচনা করলেও তারা নিজেরাই বরাদ্দ বাড়ানোর কথা বলে নিজেদের দাবি তুলে ধরেন।

এর আগে, গত ৭ জুন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ‘সমৃদ্ধ আগামীর পথযাত্রায় বাংলাদেশ’ শিরোনামে তাঁর জীবনের ১২তম বাজেট সংসদে পেশ করেন। এই বাজেট পেশ করার মধ্য দিয়ে বিএনপির অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের সমান বাজেট দেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেন অর্থমন্ত্রী। টানা ১০ বাজেট দেওয়ার অনন্য রেকর্ডটিও এখন তাঁর।

অর্থমন্ত্রী ২৫ শতাংশ ব্যয় বাড়িয়ে ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেছিলেন। এরপর ১১ জুন থেকে ২৭ জুন পর্যন্ত প্রস্তাবিত ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের বাজেটের ওপর সরকারি ও বিরোধী দলের সদস্যরা সাধারণ আলোচনা করেন। প্রায় ৫০ ঘণ্টা আলোচনার পর আজ বৃহস্পতিবার সেই বাজেট পাস হয়।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ২৮০ কোটি টাকা, যা জিডিপির ১৩ দশমিক ৪ শতাংশ। এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) থেকে ২ লাখ ৯৬ হাজার ২০১ কোটি টাকা, যা জিডিপির ১১ দশমিক ৭ শতাংশ। এনবিআর এর বাইরে অন্যান্য খাত থেকে রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৯ হাজার ৭২৭ কোটি টাকা (জিডিপির ০. দশমিক ৪ শতাংশ) এছাড়া কর বর্হিভূত খাত থেকে রাজস্ব আহরিত হবে ৩৩ হাজার ৩৫২ কোটি টাকা (জিডিপির ১ দশমিক ৩ শতাংশ)।






Related News

Comments are Closed