Main Menu
শিরোনাম
সম্মেলন সফলে বাউল কল্যাণ সমিতির সভা         দুই বছরেও উদ্ধার হওয়া লাশের পরিচয় মিলেনি         বিশ্বনাথে রুমি হত্যাকারীর ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন         ওসমানীনগরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০         কমলগঞ্জে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে তরুণীর মৃত্যু         বিয়ানীবাজারে অটোরিকশার ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু         শাহ্ আরফিনে টাস্কফোর্সের অভিযানে পে-লোডার জব্দ         সিলেটে অগ্নিকান্ডে ৫টি দোকান ও ৩টি ঘর ভস্মিভূত         তামাবিল স্থল বন্দরে প্রশাসনিক ভবনের উদ্বোধন         সিকৃবিতে স্বয়ংক্রিয় কৃষি-আবহাওয়া স্টেশন স্থাপিত         ফেঞ্চুগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু         সুরমা নদীতে নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার        

সিলেটে ৫টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করলেন সেনা প্রধান

প্রকাশিত: ৮:৪৯:৫১,অপরাহ্ন ২২ এপ্রিল ২০১৮ | সংবাদটি ৭৯ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: নবগঠিত সিলেট সেনানিবাসকে পূর্ণাঙ্গ সেনানিবাস হিসাবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ১৭ পদাতিক ডিভিশনের অধীনস্থ ৫টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করেছেন সেনাবাহিনী প্রধান আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক ও পদস্থ সামরিক কর্মকর্তারা। রোববার সকালে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সেনাপ্রধান নতুন ৫ ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করেন।

পাঁচ ইউনিট হলো- ৬৪ ইষ্ট বেঙ্গল, ৪০ বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্ট, ১৫৫ ফিল্ড ওয়ার্কশপ, ১২৫ ব্রিগেড সিগনাল ও ১৭ ইন্ডিপেন্ডেন্ট অ্যামুনিশন প্লাটুন (আইএপি)।

৬৪ ইষ্ট বেঙ্গল সিলেট অঞ্চলের রেজিমেন্ট পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে এর কার্যক্রম উদ্বোধন করেনে সেনাবাহিনী প্রধান। পরে ধারাবাহিকভাবে ৪০ বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টের

পতাকা উত্তোলন করেন ১৭ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও সিলেট এরিয়া কমান্ডার জেনারেল এস এম শামিম উজ জামান। ১৫৫ ফিল্ড ওয়ার্কশপ কোম্পানির পতাকা পাসপোর্ট অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মো. মাসুদ রেজওয়ান, ১২৫ ব্রিগেড সিগনাল কোম্পানির পতাকা অর্ডান্যান্স ফ্যাক্টরি কমান্ডেন্ট মেজর জেনারেল শেখ মামুন খালেদ এবং ১৭ ইন্ডিপেন্ডেন্ট অ্যামুনিশন প্লাটুন (আইএপি) এর পতাকা সেনা সদরের মাস্টার জেনারেল অব অর্ডান্যান্স (এমজিও) মেজর জেনারেল মো. আবু সাঈদ সিদ্দিক উত্তোলন করেন।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ১৭ পদাতিক ডিভিশনের ৫টি নবগঠিত ইউনিটের নবযাত্রার মাধ্যমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর উন্নয়ন রূপকল্প ফোর্সেস গোল-২০৩০ বাস্তবায়নের পথে আরেকটি মাইলফলক সংযোজিত হলো।

এর আগে সকাল ১০টায় সেনাবাহিনী প্রধান অনুষ্ঠানস্থলে এসে পৌঁছালে ১৭ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল এস এম শামিম উজ জামান তাঁকে অভ্যর্থনা জানান। এ সময় প্যারেড কমান্ডার মেজর তামজীদের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর একটি চৌকস দল কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করে এবং সেনাবাহিনী প্রধাকে সালাম প্রদান করে।

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক তাঁর বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী হয়ে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সু-শৃঙ্খল, দক্ষ ও যোগ্য সেনা সদস্য হিসেবে গড়ে উঠার পাশাপাশি দেশমাতৃকার মহান স্বাধীনতা রক্ষায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে সব সময় প্রস্তত থাকার আহবান জানান।

সেনা প্রধান আশা প্রকাশ করেন, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা উর্দ্ধতন নেতৃত্বের প্রতি আস্থা, পারস্পরিক বিশ্বাস, সহমর্মিতা, ভ্রাতৃত্ববোধ ও শৃংখলা বজায় রেখে নিজ নিজ কর্তব্য পালন করে যাবেন।

১৭ পদাতিক ডিভিশনের পাঁচটি নবগঠিত ইউনিটের যাত্রার মাধ্যমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর উন্নয়ন রূপকল্প ফোর্সেস গোল-২০৩০ বাস্তবায়নে আরেকটি মাইলফলক সংযোজিত হলো।






Related News

Comments are Closed