Main Menu
শিরোনাম
কুলাউড়ায় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় চা শ্রমিকের মৃত্যু         বয়সের কারণে আবারও বিশ্বনাথে বিয়ে ভঙ্গ         বিশ্বনাথে একই রাতে দুটি বাড়িতে ডাকাতি, আহত ১         সম্মেলন সফলে বাউল কল্যাণ সমিতির সভা         দুই বছরেও উদ্ধার হওয়া লাশের পরিচয় মিলেনি         বিশ্বনাথে রুমি হত্যাকারীর ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন         ওসমানীনগরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০         কমলগঞ্জে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে তরুণীর মৃত্যু         বিয়ানীবাজারে অটোরিকশার ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু         শাহ্ আরফিনে টাস্কফোর্সের অভিযানে পে-লোডার জব্দ         সিলেটে অগ্নিকান্ডে ৫টি দোকান ও ৩টি ঘর ভস্মিভূত         তামাবিল স্থল বন্দরে প্রশাসনিক ভবনের উদ্বোধন        

সিলেটে নারীর উপর পূর্বস্বামীর হামলা, পার্লার ভাংচুর

প্রকাশিত: ৭:৩১:৩৭,অপরাহ্ন ২৩ জানুয়ারি ২০১৮ | সংবাদটি ১১৬ বার পঠিত

বিশেষ সংবাদদাতা: সিলেট নগরীতে তালকপ্রাপ্তা নারীর উপর পূর্বস্বামীর হামলা ও দোকান ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে নগরীর উপশহর সোনারপাড়াস্থ ‘সোনিয়া বিউটি পার্লারে’ এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে । এ ঘটনায় এসএমপির শাহপরাণ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগে প্রকাশ, সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার দুর্লভপুর গ্রামের হাজী সিরাজ মিয়ার পুত্র কবির আহমদ শহরতলী মেজরটিলায় দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছিলেন। ওই এলাকায় থাকার সুবাদে মেজরটিলা কুসুমবাগের পার্লার ব্যবসায়ী মরিয়ম আক্তার লিপি নামের এক যুবমহিলার সাথে প্রেমের সম্পর্ক করে তাকে বিয়ে করেন। পরবর্তী সময়ে বনিবনা না হওয়ায় মরিয়ম আক্তার লিপি তাকে তালাক দিয়ে তার বিরুদ্ধে একটি মামলাও করেন। মামলাটি আদালতে বিবচারাধীন থাকেলেও লিপির পিছু ছাড়েননি যুবলীগ নেতা পরিচয়ের কবির। মামলা তুলে নিতে ও তাকে নিয়ে ফের ঘরসংসার করতে মরিয়া হয়ে উঠেন তিনি। তাই কবির প্রায়ই লিপিকে ভয়ভীতি ও হুমকি ধমকি দিয়ে আসছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার সকালে কবির তার পরিত্যক্তা স্ত্রী লিপির মালিকানাধীন সোনারপাড়াস্থ সোনিয়া বিউটি পার্লারে যান এবং মামলা তুলে নিয়ে তার সাথে পুনরায় ঘরসংসার করার প্রস্তাব দেন। মরিয়ম আক্তার লিপি তাতে অসম্মসতি জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে কবির তার পার্লারে ভাংচুর করে প্রায় ২০ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন ও লিপিকে মারধর করে পার্লারে থাকা ১২ হাজার টাকা লুটে নেন। আশপাশের ব্যবসায়ীরা এগিয়ে আসলে লিপি রক্ষা পান । এসময় লিপিকে পরবর্তীতে খুন ও অপহরনের হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন কবির। কবির বর্তমানে শিবগঞ্জ খরাদিপাড়ায় বসবাস করছেন। খবর পেয়ে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ঘটনায় মরিয়ম আক্তার লিপি বাদী হয়ে কবির আহমদের বিরুদ্ধে এসএমপি’র শাহপরাণ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
সূত্র জানায় ২০১১ সালে কবির প্রথমে তানিয়া চৌধুরী নামের এক মেয়েকে বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু কনে তুলে আনার আগেই সে বিয়ে ভেঙ্গে যায় এবং তানিয়া তাকে আইনত তালাক দেয়। পরে প্রেম করে বিয়ে করেন মরিয়ম আক্তার লিপিকে। বর্তমানে সে দুই সন্তানের জননী আরেক মহিলাকে বিয়ে করায় লিপি তাকে তালাক দেয়।
শাহপরাণ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আখতার হোসেন অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। প্রাথমিক তথ্যের সত্যতা পাওয়া গেলে নিয়মিত মামলা রুজু ও আসামীকে গ্রেফতার করা হবে।






Related News

Comments are Closed