৭ কলেজকে অধিভুক্তি ‘অপরিকল্পিত’: ঢাবি কর্তৃপক্ষ

বৈশাখী নিউজ ২৪ ডটকম । প্রকাশিতকাল : ১০:১৪:১৭,অপরাহ্ন ২০ জানুয়ারি ২০১৮ | সংবাদটি ১৫৭ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: পূর্ব প্রস্তুতি ছাড়া ‘অপরিকল্পিতভাবে’ হঠাৎ করে ঢাকার ৭টি সরকারি কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত করায় পরীক্ষার সময়সূচি আর ফল প্রকাশে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে বলে স্বীকার করেছে ঢাবি কর্তৃপক্ষ।

ওই ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের দফায় দফায় আন্দোলনের মুখে শনিবার (২০ জানুয়ারি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অধিভুক্ত কলেজ-ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কোনো পরিচয়পত্র দেয়া হবে না। তাদেরকে আগের মতো নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে পরিচয়পত্র নিতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় গত বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয় ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা মহিলা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ ও তিতুমীর কলেজ। তখন ঢাবির উপাচার্য ছিলেন অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। এখন উপাচার্যের দায়িত্বে আছেন অধ্যাপক আকতারুজ্জামান।

ঢাবির আওতাধীন হওয়ার পর গত প্রায় এক বছরে অন্তত তিন দফায় পরীক্ষার সময়সূচি ও ফল প্রকাশের দাবিতে রাজপথে নেমেছে ওই সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। গেল বছরের ২০ জুলাই প্রথমবার আন্দোলন শুরু হলে পুলিশের কাঁদানে গ্যাসের শেলে দৃষ্টিশক্তি হারান তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমান। এ ঘটনায় প্রায় ১২শ’ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা দেয় পুলিশ।

এর পর দ্বিতীয় দফায় চতুর্থ বর্ষের ফল প্রকাশের দাবিতে গেল অক্টোবরে রাজধানীর নীলক্ষেতে শিক্ষার্থীরা রাজপথ অবরোধ করলে ঢাবি প্রশাসনের যথাসময়ে ফল প্রকাশের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় শিক্ষার্থীরা। নভেম্বরেই চতুর্থ বর্ষের ফল প্রকাশ করা হয়।

এর পর দুই মাস পর গত ১৮ জানুয়ারি ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষের ফল প্রকাশ ও তৃতীয় বর্ষের ক্লাস শুরুর দাবিতে আবারও নীলক্ষেত মোড় অবরোধ করে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। আগামী এক মাসের মধ্যে ফল প্রকাশের আশ্বাস দিলে আগের মতোই অবরোধ প্রত্যাহার করে ছাত্র-ছাত্রীরা।

তবে এরই মধ্যে জানুয়ারির শুরুর দিকে ঢাবি শিক্ষার্থীদের একটি অংশ ওই সাত কলেজকে ঢাবির অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে নামে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে অধিভুক্ত-উপাদানকল্প শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা-সম্পর্ক বিষয়ে সম্প্রতি যেসব বিভ্রান্তি ও অস্পষ্টতা রয়েছে, সেসব নিরসনে নিম্মোক্ত বিষয়গুলোর প্রতি সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হচ্ছে-

১. অধিভুক্ত-উপাদানকল্প শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত নিজ নিজ কলেজ-ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী। তাদের পাঠদান ও পরীক্ষা কার্যক্রম স্ব স্ব কলেজ ক্যাম্পাসে পরিচালিত হবে।

২. উল্লিখিত কলেজ-ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো পরিচয়পত্র দেয়া হবে না। তারা আগের মতো নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে পরিচয়পত্র নিতে হবে।

৩. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন, পরিবহন, স্বাস্থ্যসেবা, পাঠাগার প্রভৃতির কোনোটিই ব্যবহার করার সুযোগ ওই কলেজ-ইনস্টিউটের শিক্ষার্থীদের নেই। তারা আগের মতো নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সুবিধাদি গ্রহণ করবে।

৪. অধিভুক্ত-উপাদানকল্প শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের ভর্তি, ব্যবহারিক পরীক্ষা, মৌখিক পরীক্ষা, ব্যাংকিং কার্যক্রম প্রভৃতি নিজ নিজ কলেজ ক্যাম্পাসের সুবিধাজনক স্থানে অনুষ্ঠিত হবে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে নয়।

৫. ওই কলেজ-ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা-সহায়ক কার্যক্রমও নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস শুধু এ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্রধারী শিক্ষার্থীদের জন্যই উন্মুক্ত থাকবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্বীকার করে, পূর্বপ্রস্তুতি ছাড়া অপরিকল্পিতভাবে হঠাৎ করে ঢাকার সাতটি সরকারি কলেজকে অধিভুক্তপ্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রহণের ফলে অসুবিধার সৃষ্টি হয়েছে।

তবে স্বতন্ত্র লোকবল ও ব্যবস্থাপনা দ্বারা অধিভুক্ত-উপাদানকল্প শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে বিধায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ও সামগ্রিক কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হবে না বলে বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করা হয়।






Related News

  • ইবি’র ভর্তি পরীক্ষায় যোগ হচ্ছে লিখিত প্রশ্ন
  • ঢাবিতে অনলাইনে ভর্তি সময়সীমা বেড়েছে
  • এনইউ’র ভর্তি কার্যক্রম শুরু ১ সেপ্টেম্বর
  • ১৯ দিনের ছুটিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
  • সরকারীকরণ হয়েছে সিলেট বিভাগের ২৮ কলেজ
  • সরকারি হলো সিলেটের দশটি সহ দেশের ২৭১ কলেজ
  • জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ
  • এমবিবিএস কোর্সে ৫০০ আসন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত
  • Comments are Closed