Main Menu
শিরোনাম
কুলাউড়ায় পেট্রোলের গোডাউনে আগুন, ৭ লাখ টাকার ক্ষতি         সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ’র মিটার রিডাররা কর্মবিরতিতে         বিশ্বনাথে শিশু অপহরণের চেষ্ঠা, আটক ১         সুনামগঞ্জ-১ আসনে কোন্দলে আ’লীগ, বিএনপিতে প্রার্থীজট         শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু আজ         বিশ্বনাথে পরিবহন শ্রমিক-জাপার মধ্যে উত্তেজনা         কানাইঘাটে খাসিয়ার গুলিতে নিহত মামুনের দাফন সম্পন্ন         ঘাতক শফিকের ফাঁসি চায় স্কুলছাত্রী রুমির পরিবার         বালাগঞ্জে যুবদল নেতা গ্রেফতার         শশুরবাড়িতে গায়ে আগুন লাগিয়ে জামাতার আত্নহত্যা         বিশ্বনাথে এমপি এহিয়ার বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল         কানাইঘাটে ভারতীয় খাসিয়াদের গুলিতে বাংলাদেশী যুবক নিহত        

ছাতকে মালামালসহ ৩ ডাকাত গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৭:৩৮:৩৮,অপরাহ্ন ২৩ অক্টোবর ২০১৭ | সংবাদটি ১৫০ বার পঠিত

কামরুল ইসলাম সবুজ, ছাতক প্রতিনিধি: ছাতকে একটি দূর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনার প্রায় ২০ ঘন্টার মধ্যেই পুলিশের সাড়াশি অভিযানে মালামালসহ ৩ ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রোববার রাত ৯টায় শহরের নোয়ারাই এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, গত শুক্রবার নোয়ারাই মহল্লার হাজি মিজফতাহ আহমদের বাড়িতে হানা দিয়ে ডাকাতরা নগদ ৭ লক্ষাধিক টাকা ও ২০ভরি স্বর্ণালংকারসহ ১৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুঠে নেয়। এসব মালামাল উদ্ধার ও ডাকাতদের গ্রেফতারে সুনামগঞ্জ সহকারি পুলিশ সূপার (ছাতক-দোয়ারা) মো. দোলন মিয়া ও ছাতক থানার অফিসার্স ইনচার্জ আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে ওসি (তদন্ত) আশরাফুল ইসলাম, অপারেশন ইনচার্জ এসআই গোলাম মোস্তফা, এসআই সুহেল রানা, এসআই সফিকুল হক, এসআই খসরু মিয়া, এসআই অরূপ সাগর, এএসআই মুহিবুল হক, এএসআই মহি উদ্দিন, এএসআই পিংকু দে, এএসআই রেজওয়ানসহ একদল চৌকস পুলিশ রোববার রাতেই শহর ও আশপাশ এলাকায় সাড়াশি অভিযান চালায়। অভিযানে লুন্ঠিত মালামালের মধ্যে ১৪ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ১ লাখ ৫১ হাজার টাকা, মোবাইল ও অস্ত্রসহ ৩ ডাকাতকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, নোয়ারাই গ্রামের মনোহর আলীর পুত্র শাহিন (৩০), আব্দুল মোমিনের পুত্র আব্দুর রহিম (২৫), রশিদ আলীর পুত্র দুলাল মিয়া (২০)। সোমবার এদেরকে সুনামগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
ছাতক থানার অফিসার্স ইনচার্জ আতিকুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা (নং ১৪, তাং ২৩.১০.২০১৭ইং) দায়ের করা হয়েছে।

 






Related News

Comments are Closed