Main Menu
শিরোনাম
কুলাউড়ায় পেট্রোলের গোডাউনে আগুন, ৭ লাখ টাকার ক্ষতি         সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ’র মিটার রিডাররা কর্মবিরতিতে         বিশ্বনাথে শিশু অপহরণের চেষ্ঠা, আটক ১         সুনামগঞ্জ-১ আসনে কোন্দলে আ’লীগ, বিএনপিতে প্রার্থীজট         শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু আজ         বিশ্বনাথে পরিবহন শ্রমিক-জাপার মধ্যে উত্তেজনা         কানাইঘাটে খাসিয়ার গুলিতে নিহত মামুনের দাফন সম্পন্ন         ঘাতক শফিকের ফাঁসি চায় স্কুলছাত্রী রুমির পরিবার         বালাগঞ্জে যুবদল নেতা গ্রেফতার         শশুরবাড়িতে গায়ে আগুন লাগিয়ে জামাতার আত্নহত্যা         বিশ্বনাথে এমপি এহিয়ার বিরুদ্ধে ঝাড়ু মিছিল         কানাইঘাটে ভারতীয় খাসিয়াদের গুলিতে বাংলাদেশী যুবক নিহত        

ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে আটক ১৫

প্রকাশিত: ৯:৪১:০২,অপরাহ্ন ২০ অক্টোবর ২০১৭ | সংবাদটি ১০৩ বার পঠিত

বৈশাখী নিউজ ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে আজ ইলেকট্রনিক ডিভাইসসহ ১৫ ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে।
তারা হচ্ছে- মহিউদ্দিন রানা, আব্দুল্লাহ আল মামুন,ইসরাক হোসেন রাফি,নুর মো. মাহবুব, ফরহাদুল আলম রাফি, আব্দুল্লাহ আল মুকিম, রিশাদ কবির, আসাদুজ্জামান মিনারুল, ইশতিয়াক আহমেদ, জয় কুমার সাহা, রেজওয়ানা শেখ শোভা, মাশুকা নাসরীন, তারিকুল ইসলাম, নাছিরুল হক নাহিদ ও মিরাজ আহমেদ।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর এম আমজাদ আলী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, আজ শুক্রবার সকালে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি করার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আশপাশের কেন্দ্র থেকে ডিভাইসসহ তাদের হাতেনাতে আটক করা হয়।
তিনি জানান,মোট ১৫ জনকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১২ জনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাজা দেয়া হয়। অপর দিকে বাকি ৩ জনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

রাজধানীর মালিবাগ সিআইডি কার্যালয়ে শুক্রবার আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্লা নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আটকদের কাছে মাস্টারকার্ডের মতো ইলেক্ট্রিক ডিভাইস পাওয়া গেছে। সঙ্গে আছে ক্ষুদ্র এয়ারপিস। এটি কানে লাগিয়ে ইলেক্ট্রিক ডিভাইসের সঙ্গে যুক্ত করা হয়। ফলে এই ডিভাইস দিয়ে অনায়াসে বাইরে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়। প্রশ্নে সেট কোড জানার পর বাইরে থেকে জালিয়াত চক্রের সদস্যরা উত্তর বলে দেয় আর তা শুনে শুনে উত্তরপত্র পূরণ করে পরীক্ষার্থীরা।’

বিশেষ পুলিশ সুপার আরও বলেছেন, ‘জালিয়াতির পর চুক্তি অনুযায়ী জালিয়াতদেরকে দুই থেকে পাঁচ লাখ টাকা করে দিতে হয়েছে প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর। এর সঙ্গে আরও যারা জড়িত আছে তাদের খুঁজে বের করতে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।’

পরীক্ষা কেন্দ্রে ডিভাইস ব্যবহারে জালিয়াতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত ১২ পরীক্ষার্থী হলো— কিশোরগঞ্জের ইশরাক আহমেদ রাফী, গাইবান্ধার আব্দুল্লাহ আল মুকিম ও মোহাম্মদ রিশাদ কবির, পাবনার মিরাজ আহমেদ, বগুড়ার জয় সাহা, কুমিল্লার নূর মোহাম্মদ মাহবুব, রেজোয়ানা শেখ শোভা ও মাসুকা নাসরিন রোজা, ময়মনসিংহের তারিকুল ইসলাম, রংপুরের নাসিরুল হক নাহিদ, ফরিদপুরের এমডি ফারহাতুল আলম রাফি, নাটোরের মো. মিনারুল।

ঢাকা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহীদ এলাহী জানান, মাস্টারকার্ডের মতো ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসে সিম কার্ড ঢুকিয়ে কেন্দ্রের বাইরে যোগাযোগ করে উত্তর সংগ্রহের সময় এই পরীক্ষাদেরকে হাতেনাতে ধরা হয়। তাদের কানে ছিল অতিক্ষুদ্র তারবিহীন হেডফোন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে দোষ স্বীকারের পর প্রত্যেককে ১মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক এম আমজাদ আলী, সহকারী প্রক্টর মো. সোহেল রানা, এ কে লুতফুল কবীর, অধ্যাপক মাইনুল ইসলাম, অধ্যাপক রবিউল ইসলাম।

এদিকে পরীক্ষা শুরুর আট ঘণ্টা আগে ফাঁস হয় প্রশ্নপত্র। এদিন সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়েছে ঢাবি ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে ‘ঘ’ ইউনিটের অধীনে প্রথম বর্ষ (স্নাতক) সম্মান শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা। পরে মিলিয়ে দেখা গেছে, ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্রেই ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, ঘ-ইউনিটে ১ হাজার ৬১০টি (বিজ্ঞান- ১১৪৭টি, বিজনেস স্টাডিজ- ৪১০, মানবিক- ৫৩টি আসনের বিপরীতে মোট ৯৮ হাজার ৫৪জন ভর্তিচ্ছু ছাত্রছাত্রী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরের ৮৬টি কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।

 

 

 






Related News

Comments are Closed